Press "Enter" to skip to content

লাদাখের সর্বাধিক উচ্চতায় ৩৫ হাজার জওয়ান মোতায়েন করল ভারত, চীনের থেকে এগিয়ে রইল কয়েকধাপ আগে

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ লাদাখে (Ladakh) ভারত (India) আর চীনের (China) মধ্যে সীমান্ত বিবাদ এখনো চলছে। চীনের সেনাকে এপ্রিল মাসের আগের পজিশনে পাঠানোর জন্য কূটনৈতিক স্তরে কথাবার্তা চলছে। আর এরমধ্যেই ভারত চীনকে টাইট দিতে লাদাখে ৩৫ হাজারের বেশি জওয়ান মোতায়েন করেছে ভারত। আর এই ভারতীয় জওয়ানরা চীনের সেনার থেকেও বেশি উচ্চতায় আছে। উঁচু জায়গায় পোস্টিংয়ের কারণে ভারতীয় সেনা বেশি করে সক্রিয় হয়ে চীনের সেনার উপর প্রতিটি গতিবিধিতে নজর রাখতে পারবে এবং উচ্চতায় থাকার দরুন চীনের সেনাকে যোগ্য জবাবও দিতে পারবে।

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল, যেই ভারতীয় জওয়ানরা এখন বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখার পাশে মোতায়েন আছে, তাঁরা আগে থেকেই সেখানকার আবহাওয়ার সাথে মানিয়ে নিয়েছে। কিন্তু চীনের ক্ষেত্রে সমস্যা হল, তাঁরা দেশের অন্যান্য প্রান্ত থেকে জওয়ানদের এনে সেখানে মোতায়েন করছে আর লাদাখের হাড় কাঁপানো ঠাণ্ডা তাঁদের সামনে বড় সমস্যা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। চীনের ওই জওয়ানরা এত ঠাণ্ডায় থাকার অভ্যস্ত না।

সংবাদসংস্থা ANI অনুযায়ী, ভারত ওই এলাকায় এমন জওয়ান মোতায়েন করেছে যারা পূর্ব লাদাখ এবং সিয়াচেনে একবার করে হলেও মোতায়েন ছিলেন। তাঁরা শারীরিক আর মানসিক দিক থেকে ওই এলাকায় থাকার জন্য সম্পূর্ণ ভাবে অভ্যস্ত। কিন্তু এর বিপরীতে চীনের সেনা এরকম হাড় কাঁপানো ঠাণ্ডায় থাকতে এবং লড়তে অভ্যস্ত না। এমনকি চীনের অনেক জওয়ান আছে যারা খুব কম সময়ের জন্য সেনায় যোগ দেয় এবং কয়েক বছরের মধ্যেই তাঁরা আবার সেনা ছেড়ে নিজেদের কাজে ফিরে যায়।

ঠাণ্ডার মরশুমের কারণে ভারতীয় জওয়ানদের জন্য আগে থেকেই গরম কাপড় এবং প্রয়োজনীয় সামগ্রীর বড় স্টক উপলব্ধ করানো হয়েছে। এই সময় ভারতীয় জওয়ানরা যেখানে মোতায়েন আছে, সেটা বিশ্বের সবথেকে উঁচু জায়গায় অবস্থিত রণক্ষেত্র বলেই পরিচিত। উল্লেখ্য, বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখার পাশে দুই দেশের তরফ থেকেই ৪০ হাজারের বেশি জওয়ান মোতায়েন করা হয়েছে।