Press "Enter" to skip to content

হরিয়ানায় অবসরপ্রাপ্ত সাব ইনস্পেকটর সমেত সাতটি পরিবার স্বেচ্ছায় গ্রহণ করল হিন্দু ধর্ম

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ দিল্লী থেকে মাত্র ৭০ কিমি দূরে অবস্থিত গ্রাম হরিয়ানার ভোগীপুর আজকাল চর্চার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ ওই গ্রামে ৭ টি মুসলিম পরিবার স্বেচ্ছায় হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করেছে। তাদের হিন্দু ধর্ম আপন করার জন্য কোন ভয়ও দেখানো হয়নি, আর না কোন প্রলোভন দেওয়া হয়েছে। যারা হিন্দু ধর্ম আপন করে নিয়েছেন, তাদের নাম আর গোত্র হিন্দুদের মতই ছিল, কিন্তু ওই পরিবার গুলো ইসলামিক প্রথা অনুযায়ী, শেষকৃত্য সম্পন্ন কোর্ট। এবার হিন্দু ধর আপন করার পর তাঁরা হিন্দু প্রথা অনুযায়ী সমস্ত নিয়ম পালন করবেন।

রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের মণ্ডল প্রধান সুমিত অন্নি দ্বারা এই সমস্ত পরিবারের হাতে গীতা তুলে দেওয়া হয়েছে। আর তাদের হিন্দু ধর্মে স্বাগত জানানো হয়েছে। হিন্দু ধর্ম আপন করে নেওয়া ব্যাক্তিদের মধ্যে রিটায়ার্ড সাব ইনস্পেকটর বলবীর সিং ও আছেন।

এদের মধ্যে অনেকেই জানান যে, তাঁরা এখন হিন্দু ধর্ম আপন করে নিলেন এটা ঠিক, কিন্তু এর অনেক আগে থেকেই তাঁরা হিন্দু প্রথা অনুযায়ী সমস্ত কিছু পান করতেন। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, হিন্দু ধর্ম আপন করে নেওয়া সুরেশ কুমার বলেন, কয়েক দশক আগে আমাদের পূর্বপুরুষেরা হিন্দুই ছিলেন, কিন্তু তাঁরা ইসলাম ধর্ম আপন করে নেন।

বিগ কয়েক বছর ধরেই তাঁরা হিন্দু হওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছিল আর ধীরে ধীরে হিন্দু প্রথা পালন করা শুরু করেছিল। এরা সবাই ধোপা সম্প্রদায় ভুক্ত। হিন্দু ধর্ম আপন করার সাতটি পরিবার জানায়, এবার তাঁরা মুসলিম শব্দ সরিয়ে প্রকৃত ভাবে হিন্দু হল। গ্রামবাসীরাও তাদের হিন্দু ধর্মে স্বাগত জানিয়েছেন।

হিন্দু ধর্ম আপন করে নেওয়া সমস্ত পরিবারের সদস্যরা জানান যে, তাদের ধর্ম পরিবর্তনের জন্য কোন চাপ দেওয়া হয়নি, না কোন লোভ দেখানো হয়েছে। তাঁরা স্বেচ্ছায় সবাই মিলে হিন্দু ধর্ম আপন করেছে।