নতুন খবরভারতবর্ষ

ধামাকায় দুই হাত নষ্ট হয়ে যাওয়ার পরেও PHD করেছিলেন মালবিকা! নরেন্দ্র মোদীর ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট এবার ওনার হাতে

নয়া দিল্লীঃ ে () প্রধানমন্ত্রী () স্নেহা মোহনদাসের পর মালবিকা আইয়ারকে () নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্ট দিয়ে দেন। মালবিকা সেই সাতজন মহিলাআর মধ্যে আছে, যিনি প্রধানমন্ত্রী মোদীর ট্যুইটার অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে নিজের প্রেরণার কাহিনী সবাইকে শোনান।

নিজের কাহিনী বলার সময় লেখেন, ‘স্বীকৃতি সবথেকে বড় পুরস্কার, যেটা আমরা নিজেকে দিতে পাড়ি। আমরা জীবনকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারব না, কিন্তু নিশ্চিত রুপে জীবনের প্রতি আমাদের দৃষ্টিকোন নিয়ন্ত্রণ করতে পারি। দিনের শেষে এটাই গুরুত্ব থাকে যে, আমরা আমাদের চ্যালেঞ্জের সন্মুখিন হলাম।”

মালবিকা লেখেন, ‘১৩ বছর বয়সে একটি বোমা হামলায় তাঁর দুই হাত নষ্ট হয়ে যায়। এছাড়াও তাঁর পায়েও চোট লেগেছিল। এরপরেও আমি কাজ আর পড়াশুনা করে পিএইচডি কমপ্লিট করি। কিছু ছেড়ে দেওয়া বিকল্প হতে পারেনা। নিজের সীমার কথা ভুলে যান আর বিশ্বাস এবং আশার সাথে বিশ্বে পা রাখুন। আমার হিসেবে শিক্ষা পরিবর্তনের জন্য অপরিহার্য।”

মালবিকা আরও লেখেন, আমাদের উচিৎ বৈষম্যমূলক ভাবনা চিন্তা নিয়ে দেশের যুবদের মাথাকে সংবেদনশীল বানানো। আমাদের বিকলাঙ্গ মানুষদের কমজোর অথবা অন্যের উপর নির্ভর করার জায়গায়, তাঁদের রোল মডেল করে তোলা উচিৎ। মনোবৃত্তি বিকলঙ্গতাকে ধ্বংস করার অর্ধেক লড়াই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী মহিলা দিবসে আমাকে আমার বিচার গুলোকে প্রসার করার জন্য নির্বাচিত করেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই পদক্ষেপে আমার বিশ্বাস জন্মেছে যে, বিকলঙ্গতার মামলায় ভারত পুরনো অন্ধবিশ্বাসকে শেষ করার জন্য সঠিক রাস্তায় চলছে।

Back to top button
Close