Press "Enter" to skip to content

সাহসিকতার আরেক নাম কমর গুল, ১৬ বছর বয়সে AK-47 তুলে সাবার করল দুই তালিবানিকে

শেয়ার করুন -

ওয়েবডেস্কঃ আফগানিস্তানে (Afghanistan) এক ১৬ বছরের কমর গুল (Qamar Gul) নামের এক কিশোরী দুই তালিবানিকে (Talibani) নিকেশ করে। তালিবানি জঙ্গিরা ওই কিশোরীর বাড়িতে হানা দিয়ে তাঁর মা-বাবাকে গুলি করে হত্যা করেছিল। আর সেটার প্রতিশোধেই কিশোরী তখনই রাইফেল উঠিয়ে তালিবানের উপর পাল্টা হানা দেয়। কিশোরীর গুলির আঘাতে কয়েকজন তালিবানি জঙ্গি প্রাণ বাঁচিয়ে পালায়। তবে দুজন গুরুতর আহত হয়ে সেখানে খতম হয়ে যায়।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, আফগানিস্তান সরকারের সাহায্য করার দায়ে ওই কিশোরীর মা-বাবাকে শায়েস্তা করতে তাঁদের বাড়িতে হানা দিয়েছিল তালিবানিরা। তালিবানিদের নিশানায় গ্রামের প্রধান (কিশোরীর মা) আর ওই কিশোরীর বাবা ছিল। হামলার সময় কিশোরী বাড়ির ভিতরেই ছিল, আর সে নিজের চোখের সামনে মা-বাবার মৃত্যু দেখে AK-47 তুলে নেয়। কমোড় গুল নামের ওই কিশোরীর চর্চা এখন গোটা বিশ্বজুড়ে চলছে।

গুলে হামলার পর ওই গ্রামে আরও এক তালিবানি গোষ্ঠী পৌঁছায়। ততক্ষণে সেনাবাহিনী সেখানে পৌঁছে গেছিল। আর সেনাবাহিনীকে দেখে তালিবানিরা সেখান থেকে পালাতে বাধ্য হয়। গভর্নর মোহম্মদ আরিফ বলেন, এই ঘটনার পর আফগান সেনা গুল আর তাঁর ভাইকে সুরক্ষিত স্থানে নিয়ে যায়। ঘটনা সবার সামনে আসতেই গুল সোশ্যাল মিডিয়ায় স্টার হয়ে যায়। আর এরমধ্যে একটি বন্দুক হাতে তাঁর ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরালও হয়ে যায়।

জানিয়ে দিই, কয়েক দশক ধরে তালিবানিরা আফগানিস্তানে সন্ত্রাস ছড়িয়ে আসছে। আমেরিকার সেনা আফগানিস্তানে উপস্থিত থাকলেও তাঁদের সন্ত্রাস এতটুকুও কমেনি। তালিবানিরা শুরু নিরীহ আফগানিদের উপরেই না, আফগানিস্তানে থাকা ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপরেও বারবার আক্রমণ করে এসেছে। এমনকি বড়বড় জঙ্গি হামলাতেও তাঁরা ওতপ্রত ভাবে জড়িত।