নতুন খবরবিনোদনভারতবর্ষ

‘আপনার ধর্ম অন্যের উপর চাপাবেন না” ইসলামের বিরোধিতার পর এবার তালিবানকে জবাব উরফির

নয়া দিল্লিঃ ইন্টারনেট সেনসেশন উরফি জাভেদ (Urfi Javed) তার সাহসী পরিভাষা এবং স্পষ্টভাষী বক্তব্যের জন্য প্রায়শই শিরোনামে উঠে আসেন। ‘বিগ বস’-র (Big Boss) প্রাক্তন প্রতিযোগী উরফি এবার তালিবানের সমালোচনা করে তাঁদের পতন কামনা করেছেন। আফগানিস্তান দখল করায় তিনি তালিবানের উপর খুবই ক্ষুব্ধ।

আফগানিস্তানে তালিবানের শাসন কায়েমের পর থেকে সেখানকার নাগরিকরা আশঙ্কায় দিন কাটাতে বাধ্য হয়েছেন। তাদের স্বাধীনতা কেড়ে নেওয়া হয়েছে। বিশেষ করে নারীরা শ্বাসরুদ্ধকর জীবনযাপন করতে বাধ্য হয়। তালিবান এখন নতুন নিয়ম জারি করেছে। সেই নিয়মেয় অবিবাহিত নারীদের দূরপাল্লার সড়ক ভ্রমণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তালিবানের এই সিদ্ধান্তের নিন্দা করে উরফি মঙ্গলবার তার ইন্সটা স্টোরিতে লিখেছেন, “তালিবানের দ্রুত পতন কামনা করছি। আপনার ধর্ম অন্যের উপর চাপিয়ে দেওয়া বন্ধ করুন।”

এর আগেও উরফি জাভেদ যারা জোর করে তাদের ধর্ম অন্যের উপর চাপিয়ে দিচ্ছে তাঁদের উপযুক্ত জবাব দিয়েছিলেন। জানা গিয়েছে যে, আজকাল তিনি হিন্দু ধর্ম বোঝার জন্য ভগবদ্গীতা পড়ছেন। তিনি বলেছেন যে, তিনি মুসলিম ধর্মে বিশ্বাস করেন না। সম্প্রতি, উরফি জাভেদ একটি সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন, “আমি একজন মুসলিম মেয়ে এবং আমি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশিরভাগ মুসলিম লোকের দ্বারা ট্রোলড হয়েছি। তাঁরা আমাকে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করছে। তাঁদের মতে, আমি ইসলামের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছি। তাঁরা আমাকে ঘৃণা করে কারণ মুসলিম পুরুষরা চায় নারীরা তাদের তৈরি করা বৃত্তের মধ্যে থাকুক।”

উরফি বলেছিলেন, “মুসলিমরা তাদের সম্প্রদায়ের সমস্ত মহিলাকে নিয়ন্ত্রণ করতে চায়। এ কারণে আমি ইসলামে বিশ্বাস করি না। তাঁরা আমাকেও ট্রোল করে কারণ আমি তাঁদের মতে পোশাক পরি না, তাঁদের মতে আমার ধর্ম অনুসরণ করি না।”

বলে দিই, উরফিকে যখন জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল যে আপনি কি কখনও আপনার সম্প্রদায়ের একজন ব্যক্তিকে ভালবেসে তাঁকে বিয়ে করবেন? এ প্রশ্নের জবাবে উরফি বলেছিলেন, ‘আমি কখনোই কোনো মুসলিম ছেলেকে বিয়ে করব না। আমি ইসলামে বিশ্বাস করি না, এবং আমি কোন ধর্মকে অনুসরণ করি না, তাই আমি কাকে ভালোবাসি তা নিয়ে আমি চিন্তা করি না। আমি যাকে খুশি বিয়ে করতে পারি।”

Related Articles

Back to top button