আন্তর্জাতিকনতুন খবর

পাকিস্তানের সুরক্ষিত স্থানে থাকা জিন্নাহর মূর্তি বোমা লাগিয়ে উড়িয়ে দিল বালোচ যোদ্ধারা

নয়া দিল্লিঃ পাকিস্তানের (Pakistan) গদর শহরে (Gwadar city) বালোচ বিদ্রোহীরা রবিবার একটি বোমা হামলায় পাকিস্তানের জনক মোহম্মদ আলী জিন্নহার (Muhammad Ali Jinnah) মূর্তি উড়িয়ে দেয়। এই হামলার দায় পাকিস্তানে নিষিদ্ধ বালোচ লিবারেশন ফ্রন্ট নিজেদের কাঁধে নিয়েছে। পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম ডন অনুযায়ী, সুরক্ষিত এলাকা হিসেবে পরিচিত মেরিন ড্রাইভে জুন মাসেই পাকিস্তানের সংস্থাপক মোহম্মদ আলী জিন্নাহর ওই মূর্তিটি লাগানো হয়েছিল। আর সেটিকে এবার বোমা দিয়ে উড়িয়ে দিল বালোচ বিদ্রোহীরা। রিপোর্ট অনুযায়ী, এই হামলায় মূর্তিটি সম্পূর্ণ ভাবে নষ্ট হয়ে গিয়েছে।

বিবিসি উর্দুর রিপোর্ট অনুযায়ী, বালুচ রিপাবলিকান আর্মির মুখপাত্র ববগর বালোচ ট্যুইট করে এই বিস্ফোরণের দায় স্বীকার করেছে। বিবিসি উর্দু গদারের কমিশনার আবদুল কবীর খানের থেকে জানতে পেরেছে যে, এই মামলায় উচ্চতম স্তরে তদন্ত কর হবে।

কবীর খান বলেছেন, বালোচ বিদ্রোহীরা পর্যটক রূপে এলাকায় আসে আর বিস্ফোটক লাগিয়ে জিন্নাহর মূর্তি উড়িয়ে দেয়। কবীর জানান, এখনও কাউকে এই ঘটনায় গ্রেফতার করা হয়নি তবে আগামী দু-এক দিনের মধ্যে তদন্ত পূর্ণ করে পদক্ষেপ নেওয়া হবে। উনি জানান, খুব শীঘ্রই আমরা দোষীদের ধরে ফেলব।

এটাই প্রথম না, এর আগে ২০১৩ সালে বালোচ বিদ্রোহীরা জিয়ারতে জিন্নাহর ১২১ বছরের পুরনো বাড়ি বিস্ফোট করে ধ্বংস করে দিয়েছিল। বিস্ফোটের ফলে জিন্নাহর বাড়িতে আগুন লেগে গিয়েছিল আর চার ঘণ্টা পর্যন্ত সেই আগুন জ্বলতে থাকে। বলে দিই, অসুস্থ হওয়ার পর জিন্নাহ নিজের জীবনের শেষের দিনগুলি ওই বাড়িতেই কাটিয়েছিলেন। পাকিস্তান সরকার বাড়িটিকে রাষ্ট্রীয় স্মারকও ঘোষণা করেছিল।

Related Articles

Back to top button