Press "Enter" to skip to content

বিকাশ দুবের পর যোগীরাজ্যে আরও একটি বড়সড় এনকাউন্টার, নিকেশ হল ১ লক্ষ টাকার ইনামি অপরাধী

শেয়ার করুন -

কাসগঞ্জঃ উত্তর প্রদেশের কাসগঞ্জ হত্যাকাণ্ডের প্রধান অভিযুক্ত তথা এক লক্ষের ইনামি দুষ্কৃতী মোতি সিংকে যোগীর পুলিশ এনকাউন্টারে নিকেশ করল। এনকাউন্টারের পর অভিযুক্তকে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল, সেখানে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করে।

কাসগঞ্জের পুলিশ সুপার মনোজ কুমার সোনকর বলেন, এক লক্ষ টাকার ইনামি দুষ্কৃতী মোতিকে গ্রেফতার করার জন্য পুলিশের ছয়টি টিম গঠন করা হয়েছিল। সোনকর বলেন, গতকাল রাতে গোপন সুত্রে খবর পাওয়া গিয়েছিল যে মোতি তাঁর করতলা রোড, কালি নদীর পাশের জঙ্গলে লুকিয়ে ছিল। পুলিশের টিম ভোর রাতে আড়াইটে থেকে তিনোটের মধ্যে চারিদিক ঘিরে ফেলে। এরপর মোতি ফায়ারিং শুরু করে।

সোনকর বলেন, পুলিশের টিম জবাবি ফায়ারিং করে। এরপর গুলিবিদ্ধ হয় মোতি। আর মোতির এক সঙ্গী সেখান থেকে পালিয়ে যায়। সোনকর জানান। আহত মোতিকে পুলিশের গাড়িতে তুলে প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখান থেকে তাঁকে কাসগঞ্জ জেলা হাসপাতালে রেফার করে দেওয়া হয়। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মোতিকে মৃত ঘোষণা করেন।

সোনকর বলেন, দুষ্কৃতীদের কাছ থেকে পুলিশের থেকে লুট করে নেওয়া একটি সরকারি পিস্তল, গুলি আর অন্য একটি বন্দুক উদ্ধার করা হয়। মোতির দেহ পোস্টমর্টেমের জন্য পাঠানো হয়েছে।

বলে রাখি, দিন কয়েক আগে দেবেন্দ্র সিংহ নামের এক পুলিশকর্মীকে পিটিয়ে হত্যা করেছিল মোতি আর তাঁর সঙ্গীরা। ৯ ফেব্রুয়ারি রাতে পুলিশের টিমের উপর হামলা করে তাঁকে হত্যা করেছিল মোতিরা। দেবেন্দ্র সিংহের হত্যার প্রধান অভিযুক্ত মোতি আর তাঁর ভাইদের গ্রেফতার করার জন্য পুলিশ কদিন ধরেই চারিদিকে তল্লাশি চালাচ্ছিল। মোতির আগেও এই কাণ্ডে দোষী আরেকজন দুষ্কৃতীকে এনকাউন্টার করেছিল যোগীর পুলিশ।