নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

কামাখ্যা মন্দির নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য AIUDF বিধায়কের, ক্ষোভে ফুঁসে উঠলেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা

গুয়াহাটিঃ করোনা সংক্রমণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার পর, এবার কামাখ্যা মন্দির (kamakhya temple) ইস্যুতে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমেক্র্যাটিক ফ্রন্টের (All India United Democratic Front) জনৈক বিধায়ক অমিনুল ইসলাম। তাঁর দাবি, কামাখ্যা মন্দিরের জন্য জমি দান করেছিলেন মুঘল সম্রাট ঔরঙ্গজেব (Aurangzeb)।

হিন্দু ধর্মাবলম্বী মানুষদের কাছে অন্যতম একটি তীর্থ স্থান হল গুয়াহাটির কামাখ্যা মন্দির। আর এই মন্দির নিয়েই বিতর্কিত মন্তব্য করলেন বিধায়ক অমিনুল ইসলাম। তাঁর দাবি, এই মন্দিরের জন্যই নাকি জমি দান করেছিলেন সম্রাট ঔরঙ্গজেব এবং সেই প্রমাণও গচ্ছিত রয়েছে।

এক ভিডিও বার্তায় তিনি দাবি করেন, ‘সেকালে হিন্দু রাজারাও মসজিদ নির্মাণের জন্য অনেক সময় জমি দান করতেন। তখনকার দিনে আজকের মত এতো জাতপাতের ভেদাভেদ ছিল না। সেইভাবেই শুধুমাত্র কামাখ্যা মন্দিরই নয়, এছাড়াও ভারতের হিন্দু মন্দির নির্মাণের সময় জমি দান করেছিলেন ঔরঙ্গজেব। আর এই ঘটনার নথি রক্ষিত আছে ব্রিটিশ মিউজিয়ামে (British Museum)’।

বিধায়ক অমিনুল ইসলামের এই দাবিকে খারিজ করে দিয়েছেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মা (Himanta Biswa Sarma)। তিনি বলেন, ‘শঙ্করদেব বা প্রফেট মহম্মদ কেউই কামাখ্যাকে ছিনিয়ে নিতে পারবেন না। ভারতীয় সংস্কৃতিকে করা অসম্মানজনক কোন মন্তব্যই আমার সরকার সহ্য করবে না’।

পূর্বে একবার করোনা সংক্রমণ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন বিধায়ক অমিনুল ইসলাম। তিনি বলেছিলেন, কোয়ারেন্টাইনে থাকা মানুষদের এবং বিশেষ সম্প্রদায়ের মানুষজনকে টার্গেট করছে করোনা। এমন মন্তব্য করার পর তাঁকে গ্রেফতারও করা হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button