নতুন খবরবিশেষ

ইন্দিরা গান্ধী ও নরেন্দ্র মোদীর মধ্যে কে বেশি শক্তিশালী প্রধানমন্ত্রী! প্রশ্নের যোগ্য জবাব দিলেন অজয় দেবগন

সাধারণত কোনো প্রধানমন্ত্রীর কার্যকালের উপর বিবেচনা করে দেশের জনগণ প্রধানমন্ত্রীর ব্যাক্তিত্বের বিচার করেন। কোনো প্রধানমন্ত্রী তার মেয়াদের সময় কতো কঠিন নির্ণয় নেয় তা দিয়ে অন্য সময়কালের প্রধানমন্ত্রীর সাথে তুলনা করা হয়। বর্তমান ভারতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাথে ইন্দিরা গান্ধীর তুলনা করা হয়ে থাকে। দেশের প্রত্যেক প্রান্তের চায়ের দোকানে এই তর্ক বিতর্ক প্রায়শই শোনা যায়। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াতেও এই নিয়ে ব্যাপক চর্চা দেখা যায়।

অনেকে ইন্দিরা গান্ধীকে আয়রন লেডি বলে সম্বোধন করেন। বিশেষ করে কংগ্রেস পার্টির নেতা কর্মীরা ইন্দিরা গান্ধীর প্রশংসা করতে কখনো ক্লান্ত হয় না। এদিকে নরেন্দ্র মোদীর প্রশংসায় মুখর হয়ে উঠে বিজেপি সমর্থকরা। সব মিলিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ চরমে পৌঁছে যায়। অজয় দেবগন এই ইস্যুতে এমন মন্তব্য করেছেন যা ভাইরাল হয়ে পড়েছে।

অজয় দেবগন সম্প্রতি এক নিউজ চ্যানেলের অনুষ্ঠানে পৌঁছেছিলেন। সেখানে সাংবাদিক চিত্রা ত্রিপাঠি অভিনেতা অজয় দেবগনকে জিজ্ঞাসা করেন যে নরেন্দ্র মোদী ও ইন্দিরা গান্ধীর মধ্যে কাকে তিনি বেশি শক্তিশালী প্রধানমন্ত্রী মনে করেন?

চিত্রা ত্রিপাঠি বলেন, “ইন্দিরা গান্ধীর আমলে বাংলাদেশ স্বাধীন করার ইতিহাস আজও দেশবাসী স্মরণ করে। অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী মোদীর আমলে উরি এয়ার স্ট্রাইক দেশবাসীকে নতুন উৎসাহ এনে দিয়েছে। দুই প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে আপনি কাকে বেশি শক্তিশালী মনে করেন?

এই প্রশ্নের জবাবে অজয় দেবগন বলেন, আপনি দুজনের তুলনা কখনোই করতে পারেন না। দুজন দুজনের থেকে একেবারে ভিন্ন। অজয় দেবগন আরো বলেন, দুজন নিজের নিজের সময়ে শ্রেষ্ঠ। অজয় দেবগণের মতে, দুই প্রধানমন্ত্রীর তুলনা করা অনুচিত। সাধারণত কংগ্রেস সমর্থকরা প্রধানমন্ত্রী মোদীকে ছোটো করার জন্য ইন্দিরা গান্ধীর প্রসঙ্গ টেনে আনেন। এক্ষেত্রেও পরিস্থিতি কিছুই ঐরকম উৎপন্ন হয়েছিল। তবে অজয় দেবগণের মন্তব্যে প্রশ্নের ভিতকেই নাড়িয়ে দিয়েছে।

Related Articles

Back to top button