নতুন খবরভারতীয় সেনা

রিয়াজ নাইকু খতম হওয়ার সাথে সাথে সম্পূর্ণ হল NSA অজিত দোভালের ‘অপারেশন জ্যাকবুট” অভিযান

নয়া দিল্লীঃ ভারতীয় সেনা জম্মু কাশ্মীরে (Jammu Kashmir) হিজবুল মুজাহিদ্দিনের (Hizbul Mujahideen) কম্যান্ডার জঙ্গি রিয়াজ নাইকুকে (Riyaz Naikoo) খতম করেছে। রিয়াজ ৮ বছর ধরে সেনার চোখে ধুলো দিয়ে পালিয়ে বেরাচ্ছিল। সেনা তাঁর উপর ১২ লক্ষ টাকার পুরস্কারও ঘোষণা করেছিল। কিন্তু আপনি কি জানেন, এর পিছনে ভারতের জেমস বন্ড NSA অজিত দোভালের (Ajit Doval) বড় ভূমিকা ছিল? অজিত দোভালের ‘অপারেশন জ্যাকবুট” (operation jackboot) এর কারণেই জম্মু কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার হাতে খতম হয় রিয়াজ নাইকু। আর এই অভিযানেই কাশ্মীরে খতম হয়েছিল বুরহান ওয়ানি।

সংবাদ সংস্থা এএনআই অনুযায়ী, NSA অজিত দোভাল উপত্যকায় জঙ্গিদের খতম করার জন্য অপারেশন জ্যাকবুট শুরু করেছিলেন। এই অপারেশনে বুরহান ওয়ানি হিট লিস্টে ছিল। রিয়াজ নাইকুর নাম ওই অপারেশনে সবথেকে নীচে ছিল। নাইকু অপারেশন জ্যাকবুটের শেষ সবথেকে বড় জঙ্গি ছিল। আর এই জঙ্গিকে গতকাল সেনা খতম করে।

NSA অজিত দোভাল জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অপারেশন জ্যাকবুট তখন লঞ্চ করেন যখন, জম্মু আর কাশ্মীরের পুলওয়ামা, কুলগাঁম, অনন্তনাগ আর শোপিয়ানে জঙ্গিদের তরফ থেকে ‘আজাদ এলাকা” ঘোষণা করা হয়। সেখানে বুরহান ওয়ানির গ্রুপে অনেক জঙ্গি ছিল যাঁদের মধ্যে অন্যতম ছিল সাবজার ভট, আশফাকুল্লাহ, আদিল, সাদ্দাম, ওয়াসিম, নাসির পণ্ডিত, ইশফাক হামিদ, তারিক পদিত, ওয়াসিম শাহ আর আনিসের মতো স্থানীয় জঙ্গিরা। এরা সবাই এক হয়ে কাশ্মীর জঙ্গি গতিবিধি আরও বাড়ানোর ষড়যন্ত্র করেছিল।
সেই সময় কাশ্মীরের অনেক শিক্ষিত যুবক জঙ্গির খাতায় নাম লিখেয়েছিল। ওই সব জঙ্গিরা স্থানীয় পুলিশদের উপর অত্যাচার শুরু করে দেয়, আর তাঁর পরিবারদের সদস্যকেও মারা শুরু করে।

দোভালের এই অপারেশন জ্যাকবুট ইজরাইলি সরকারের ‘Operation Wrath of God” এর মতই ছিল। ইজরায়িলি সরকার ১৯৭২ সালে মিউনিখ অলিম্পিকে নিজেদের মানুষের হওয়া হত্যার বদলা নিতে প্যালেস্তাইন লিবারেশন অর্গানাইজেশন (PLO) এর বিরুদ্ধে রহস্যময়ি অভিযান চালিয়েছিল। দোভাল ইজরায়িলি সরকারের আদলেই কাশ্মীর থেকে সমস্ত জঙ্গিদের খতম করার জন্য এই অভিযানের শুরু করেন।

Related Articles

Back to top button