Press "Enter" to skip to content

নিজের চরকায় তেল দিন, নাগরিক সংশোধন বিলে নিয়ে আমেরিকাকে স্পষ্ট বার্তা ভারতের

শেয়ার করুন -

আমেরিকার বিদেশ মন্ত্রালয় ভারতের নাগরিকতা সংশোধন বিল নিয়ে চিন্তা জাহির করেছে। সোমবার এই বিল লোকসভায় পাশ হয়েছে। আমেরিকা জানায়, নাগরিক সংশোধন বিলের জন্য কোন ধার্মিক পরীক্ষণ যেকোন রাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক মহত্বের মূল সিদ্ধান্তকে কমজোর করতে পারে।

আমেরিকার এই টিপন্নির জবাব দিতে গিয়ে ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রালয় জানায়, নাগরিকতা সংশোধন বিল নিয়ে আমেরিকার কমিশনের বয়ান ভুল আছে, আর আমেরিকার এই ব্যাপারে নাক গলানো উচিৎ না। বিদেশ মন্ত্রালয়ের মুখপাত্র রবিশ কুমার বলেন। নাগরিকতা বিল আর এনআরসি কোন ধর্মের ভারতীয় নাগরিকদের নাগরিকতা ছিনিয়ে নেবেনা। আমেরিকা সমেত প্রতিটি দেশের কাছে নিজের দেশের জন্য নাগরিকতার সাথে জড়িত ইস্যু নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সম্পূর্ণ অধিকার আছে।

রাবিশ কুমার বলেন, ‘আমেরিকার কমিশনের তরফ থেকে যেমন বয়ান জারি করা হয়েছে, সেটি আমাদের অবাক করেনা, কারণ আমেরিকার রেকর্ড এমনই। যদিও, নিন্দনীয় ব্যাপার হল সংগঠনের প্রাথমিক দিক থেকে বেশি তথ্যা না থাকা স্বত্বেও এইরকম বয়ান জারি করেছে। এই সংশোধন বিল সেই সমস্ত ধার্মিক সংখ্যালঘুদের ভারতের নাগরিকতা দেবে, যারা অনেক আগে থেকেই ভারতে বসবাস করছে। ভারত এই সিদ্ধান্ত মানবাধিকারের সমস্ত দিক মাথায় রেখেই করেছে। এই প্রকারের সিদ্ধান্তের বিরোধিতা না করে সেটিকে স্বাগত জানানো উচিৎ।

আমেরিকার আন্তর্জাতিক ধার্মিক স্বাধীনতা আয়োগ (USCIRF) জানিয়েছে যে, নাগরিকতা সংশোধন বিল ভুল দিকে বাড়ানো একটি পদক্ষেপ মাত্র, আর যদি এই বিল ভারতের সংসদে পাশ হয়ে যায়, তাহলে ভারতের নেতৃত্বের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করা উচিৎ।