নতুন খবরভারতবর্ষ

ঘুম উড়বে চীনের! সীমান্ত রক্ষার জন্য রাশিয়া থেকে ৩৩ টি লড়াকু বিমান কেনার প্রস্তাব পাশ ভারতের

নয়া দিল্লীঃ চীনের (China) সাথে বেড়ে চলা সীমান্ত বিবাদের মধ্যে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাশিয়ার (Russia) থেকে ৩৩ টি নতুন ফাইটার জেট কেনার অনুমতি দিয়ে দিলেন। ভারত ১২ টি Su-30MKI আর ২১ টি MiG-29 বিমান কিনবে। এর সাথে সাথে বায়ুসেনা কাছে আগে থেকেই মজুত ৫৯ টি MiG-29 কে আরও উন্নত করা হবে। কেনা আর উন্নত করার এই পুরো প্রক্রিয়ার জন্য ১৮ হাজার ১৪৮ কোটি টাকা খরচ হবে। ভারতের প্রতিরক্ষা অধিগ্রহণ পরিষদ (Defense Aquisition Council) তিন সেনার প্রয়োজনের জন্য মোট ৩৮ হাজার ৯০০ কোটি টাকার প্রস্তাবকে মঞ্জুরি দিয়েছে। আরেকদিকে আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) রাশিয়ার (Russia) রাষ্ট্রপতি পুতিনকে (Vladimir Putin) ফোন করেন। রাশিয়ার সংবিধান সংশোধনের জন্য নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) পুতিনকে শুভেচ্ছা জানান।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে জারি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে যে, বর্তমান পরিস্থিতি আর সেনার প্রয়োজনের কথা মাথায় রেখে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের নেতৃত্বে হওয়া বৈঠকে এই প্রস্তাবকে মঞ্জুরি দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, প্রায় ৩৮ হাজার কোটি টাকার এই প্রোজেক্টে ভারতে প্রতিরক্ষা উপকরণের ম্যানুফ্যাকচারিংকে আরও বড় স্তরে নিয়ে যাওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আত্মনির্ভর ভারত অ্যাজেন্ডা অনুযায়ী ভারতে প্রতিরক্ষা উপকরণের ম্যানুফ্যাকচারিং এর কাজ করা হবে। ভারতীয় ইন্ডাস্ট্রির জন্য ৩১ হাজার ১৩০ কোটি টাকার প্রস্তাব পাশ হয়েছে। প্রতিরক্ষা উপকরণ ভারতীয় প্রতিরক্ষা কোম্পানি আর কয়েকটি MSME এর সাথে মিলে বিকশিত করা হবে।

DRDO স্বদেশী কোম্পানি গুলোর সাথে টেকনোলোজি শেয়ার করার জন্য এই প্রোজেক্ট সম্পূর্ণ করার আরও সহজ হয়ে আবে। এরমধ্যে পিনাকা হাতিয়ার, বিএমপি হাতিয়ার, উপকরণের আপগ্রেডেশন, সেনার জন্য সফটওয়ার আধারিত রেডিও যুক্ত আছে। এছাড়াও দীর্ঘ দূরত্বে ফায়ার করা ক্রুজ মিসাইল আর নেভি-এয়ারফোর্সের জন্য Astra মিসাইলের নামও আছে।

উল্লেখ্য, ভারত আর চীনের মধ্যে সীমান্ত নিয়ে বিবাদ বেড়েই চলেছে। তিনটি রাউন্ডে হওয়ার সৈন্য আধিকারিক বৈঠকের পরেও চীন পিছু হটার নাম নিচ্ছে না। ভারতের তরফ থেকে দেশের অখণ্ডতা আর সার্বভৌম ক্ষমতা রক্ষার বার্তা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও সুরক্ষার প্রসঙ্গ টেনে ভারত ৫৯ টি চীনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করে দিয়েছে। আর এরফলে চীন কড়া প্রতিক্রিয়া দিয়েছে।

Back to top button
Close