নতুন খবরভারতবর্ষ

আগে হিন্দুদের অপমান করা হত, গৌরব ফিরিয়ে দিয়েছে মোদী সরকার! বললেন অমিত শাহ

আহমেদাবাদঃ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) শনিবার বলেন, হিন্দু সম্প্রদায়ের বিশ্বাসের কেন্দ্রগুলোকে বহু বছর ধরে অপমান করা হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) নেতৃত্বে ২০১৪ সালে কেন্দ্রে সরকার গঠন হওয়ার আগে পর্যন্ত সেই গৌরব কেও বহাল করার পরোয়া করেনি। মোদী সরকার এখন সেসব স্থলের সংস্কারের জন্য নির্ভয়ের সঙ্গে কাজ করছে। উনি বলেন, এর আগে মানুষ মন্দির যাওয়ার আগে ভাবতেন, কিন্তু মোদী সরকারের আমলে নতুন এক যুগের শুরু হয়েছে।

বলে দিই, অমিত শাহ আজ আহমেদাবাদের কাদভা পাটিদার সম্প্রদায়ের দেবী ‘মা উমিয়া’-কে উত্সর্গীকৃত উমিয়াধাম মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখছিলেন। ১৫০০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭৪ হাজার বর্গগজ জমিতে এই মন্দির ও অন্যান্য ভবন তৈরি হচ্ছে। সমাবেশে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি বলেন, “বহু বছর ধরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বিশ্বাসের কেন্দ্রগুলিকে অপমানিত করা হয়েছিল এবং মোদী সরকার নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার সাথে কেন্দ্রে ক্ষমতায় না আসা পর্যন্ত কেউ গৌরব পুনরুদ্ধারের উদ্যোগ নেয়নি।”

শাহ বলেছেন, “আজ, যখন আর্য সমাজী আচার্য দেবব্রত দ্বারা একটি বিশাল মন্দিরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হচ্ছে, এমন একটি অনুষ্ঠানে আমি বলতে চাই যে মোদীজি আমাদের আস্থা আর বিশ্বাসের ভুলে যাওয়া কেন্দ্রগুলির পুনরুদ্ধারের জন্য নির্ভয়ে এবং আত্মবিশ্বাস ও শ্রদ্ধার সাথে কাজ করেছেন।  তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী আদি শঙ্করাচার্যের মূর্তি উন্মোচন করেছেন এবং ২০১৩ সালের আকস্মিক বন্যায় বিধ্বস্ত কেদারনাথ মন্দির এলাকায় কোটি কোটি হিন্দুদের বিশ্বাস কেন্দ্রকে পুনরুজ্জীবিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা ১৩ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র ভাইয়ের হাতে আওরঙ্গজেবের সময় ভেঙে ফেলা কাশী বিশ্বনাথ মন্দিরের পুনরুদ্ধার দেখতে পাব। মন্দিরগুলি কেবল ধর্মীয় বিশ্বাসের কেন্দ্রই নয়, জীবন থেকে হতাশ লোকদের জন্য অসুবিধাগুলি কাটিয়ে উঠতে এবং এগিয়ে যাওয়ার জন্য সমাজসেবা এবং শক্তির কেন্দ্রও। এই অনুষ্ঠানে অমিত শাহ পাটিদার সম্প্রদায়ের প্রশংসা করে বলেন যে গুজরাট ও দেশের উন্নতির ইতিহাস এই সম্প্রদায়ের সঙ্গে জড়িত।

Related Articles

Back to top button