Press "Enter" to skip to content

পশ্চিমবঙ্গ থেকে তৃণমূলকে উপড়ে ফেলতে নিজের কাঁধে দায়িত্ব নিচ্ছেন অমিত শাহ! তৈরি করা হচ্ছে বিশেষ রণকৌশল।

শেয়ার করুন -

২০২০ সালের প্রথম নির্বাচন দিল্লি বিধানসভায় অনুষ্ঠিত হতে চলেছে। যেখানে দিল্লির বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ভবিষ্যত ঠিক হবে। ঝাড়খণ্ডে নির্বাচন হেরে বিজেপিও দিল্লি নির্বাচনের জন্য তত্পরতা শুরু করেছে। একইসাথে পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনও বিজেপির জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে। বিজেপি নেতা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Anit Shah) এই নির্বাচনগুলি সম্পর্কে দাবি করেছেন যে এবার দিল্লিতে কেবল বিজেপি সরকার গঠিত হবে। দিল্লির কথা বলার সময় অমিত শাহ দু পা এগিয়ে গিয়ে পশ্চিমবঙ্গে (West Bengal) দুই তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠ নিয়ে সরকার গঠনের দাবি করেছেন। বিহারে এই বছরের শেষের দিকে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে চলেছে, এ সম্পর্কে কথা বলার সময় অমিত শাহ বলেছিলেন যে রাজ্যে নীতীশ কুমারের নেতৃত্বে NDA মাঠে নামবে।

Amit Shah

প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, বিজেপি আগেই জানিয়েছে যে পশ্চিবঙ্গে যখন তাদের সরকার গঠন হবে তখন সেটা তাদের জন্য স্বর্নযুগ হবে। কারণ বিজেপি পার্টির উৎপত্তি শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জীর জনসংঘ এর হাত ধরেই। সেই পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিবঙ্গ নিয়ে বিজেপির বিশেষ কিছু গুরুত্বপূর্ণ পরিকল্পনা তৈরি রয়েছে। বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করলে বিজেপিকে এখনও লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে তৃণমূলকে টক্কর দিতে হলে বিজেপিকে আরো শক্তি সঞ্চয় করতে হবে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

তবে অমিত শাহ দিল্লী থেকে যা ইঙ্গিত দিয়েছেন তাতে স্পষ্ট যে পশ্চিমবঙ্গ জয়ের জন্য পুরো দায়িত্ব অমিত শাহ নিজের হাতে নিতে চলেছেন। খবর এও এসেছে যে অমিত শাহ বাংলা জয় এর লক্ষে বাংলা ভাষা শিখতে শুরু করেছেন। ঝাড়খণ্ডের সাম্প্রতিক পরাজয়ের দায়ভার গ্রহণ করে অমিত শাহ বলেছিলেন, “সরকার ভালো কাজ করেও পিছিয়ে পড়েছে এটা নিয়ে পর্যালোচনা করা হবে, তবে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতায় সরকার গঠন করবে। জানিয়ে দি, অমিত শাহ তার রাজনৈতিক পরিকল্পনার জন্য দেশজুড়ে প্রসিদ্ধ। ভিন্ন ভিন্ন রাজ্যের জন্য ভিন্ন ভিন্ন পরিকল্পনা তৈরির জন্য অনেকে অমিত শাহকে বর্তমান সময়ের চাণক্য বলেও অভিহিত করে।

বেশকিছু রাজ্যের ধাক্কা খাওয়ার পর অমিত শাহ ২০২১ এ পশ্চিমবঙ্গ জয়ের জন্য বিশেষ রণকৌশল তৈরি করছেন বলে খবর সামনে এসেছে। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির শক্তি বৃদ্ধি নিয়ে কার কেমন দায়িত্ব থাকবে এ বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি। তবে অমিত শাহ বাংলা শিখতে শুরু করেছেন এই খবর ইঙ্গিত দিয়েছে যে পশ্চিমবঙ্গের জন্য শাহ পুরো দায়িত্ব নিজের কাঁধে নেবেন।