Press "Enter" to skip to content

পূজারীর গলায় গেরুয়া গামছা দেখে সহ্য করতে পারেনি কট্টরপন্থী আনাস কুরেশি! পিটিয়ে পিটিয়ে করল হত্যা

শেয়ার করুন -

গায়ের রং নিয়ে বৈষম্য, লিঙ্গ বৈষম্য ইত্যাদির অনেক ঘটনা বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে সামনে আসে। যেখানে বর্ণ বৈষম্য, লিঙ্গ বৈষম্য মানুষের প্রাণ পর্যন্ত কেড়ে নেয়। যদিও ভারতে এই ধরনের ঘটনা খুব একটা দেখা মেলে না। তবে ভারতের গেরুয়াধারী ও গেরুয়া রং এর প্রতি কট্টরপন্থীদের ঘৃণা দিন দিন বেড়েই চলছে।

মেরঠের ভাবনপুর এলাকা থেকে এক খবর সামনে আসছে। যেখানে এক পূজারীকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আব্দুল্লাপুর বাজারের শিবমন্দিরের উপাধ্যক্ষ ক্রান্তি প্রসাদ পুজো করতেন এবং মন্দিরের পরিষ্কার পরিছন্ন রাখার কাজও করতেন। উনি গলায় গেরুয়া গামছা রাখতেন। সোমবার উনি বিদ্যুতের বিল জমা দিতে গঙ্গানগরে গেছিলেন।

অভিযোগ উঠেছে ফেরার সময় আনাস কুরেশি নামের এক উন্মাদী গেরুয়া গামছা নিয়ে কুমন্তব্য করেন। ক্রান্তি প্রসাদ বাজে মন্তব্য করতে নিষেধ করেন। যারপর দুজনের মধ্যে ঝামেলা তুঙ্গে পৌঁছে যায়।

এরপর ক্রান্তি প্রসাদ বাড়িতে এসে উন্মাদীর বিরুদ্ধে সকলকে জানায়। যারপর খুরেসি আবার লোকজন নিয়ে এসে ক্রান্তির উপর আক্রমন করে। তৎপর মেডিক্যাল কলেজে চিকিৎসার সময় ক্রান্তির প্রসাদের মৃত্যু ঘটে।

প্রসঙ্গত, যত দিন যাচ্ছে দেশজুড়ে কট্টরপন্থীদের উপদ্রব বেড়েই চলেছে। আগে যে ধরনের খবর শুধুমাত্র বাংলাদেশ ও পাকিস্তান থেকে আসতো এখন ভারতেই ধীরে ধীরে এমন খবর লাগাতার আসছে। যদিও বেশিরভাগ সংবাদ মাধ্যম ঘটনাগুলিকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ উঠে থাকে।

বিশেষ করে মেইনস্ট্রিম মিডিয়া ভারতে কট্টরপন্থীদের উপদ্রবকে ধামাচাপা দেওয়ার প্রয়াস করে বলে সোশ্যাল মিডিয়ায় বহুবার অভিযোগ উঠেছে।