নতুন খবরভারতবর্ষ

উড়িষ্যা: খননকার্যের সময় পাওয়া গেল দশম শতাব্দীর প্রাচীন মন্দির

উড়িষ্যার রাজধানী ভুবনেশ্বরে লিঙ্গরাজ মন্দিরের কাছে অর্কিওলজি সার্ভে অফ ইন্ডিয়ান (ASI) এর খনন কাজ এখন চলছে। খনন কাজ চলাকালীন এক প্রাচীন মন্দিরের ভগ্নাবশেষ মিলেছে। এই সমস্ত খণ্ড অবশেষ দশম শতাব্দীর বলে মনে করা হচ্ছে। খনন কার্যের সময় একটা শিবলিঙ্গও পাওয়া গেছে যার উপর পাথরের খোদাই করা রয়েছে।

ASI এক হেরিটেজ প্রোজেক্ট এর আওতায় লিঙ্গরাজ মন্দিরের একমেরা ক্ষেত্রে সৌন্দর্য্যযায়ন এর কাজ করছিল। সেই সময় ASI এর হাতে প্রাচীন মন্দিরের অবশেষে খোঁজ পেয়েছে। ASI এর সুপারিনটেনডেন্ট অরুণ মালিক জানিয়েছেন, খনন কার্যের সময় আমরা এই মন্দির পেয়েছি। মন্দিরের পুরো কাঠামোটি বের করে আনতে আরো ১০ দিন সময় লাগবে।

 

খনন কার্যের সময় বেশকিছু মূর্তিও পাওয়া গেছে। এই মূর্তিগুলি সংস্কৃত মহাবিদ্যালয় প্রাঙ্গনের নীচে পাওয়া গেছে। বিগত কয়েক মাস ধরে সুকরা সারি মন্দিরের সৌন্দর্য্য বৃদ্ধির কাজ চলছে। ইতিহাসবিদ পদ্মলোচন মিশ্র বলেছেন, ভুবনেশ্বরের পরিচয় মন্দির মালিনী হিসেবে ছিল। কারণ এখানে ভিন্ন ভিন্ন ধরনের ১০০০ এর বেশি মন্দির ছিল। কিন্তু বহিরাগত আক্রমনের কারণে অধিকাংশ মন্দির নষ্ট হয়ে গেছে।

প্রসঙ্গত, ভারতীয় উপমহাদেশের বিভিন্ন এলাকায় প্রাচীন মন্দিরের অবশেষ পাওয়া অতি সাধারণ ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। সম্প্রতি পাকিস্তানের এক পাহাড়ি এলাকায় খনন কার্য চালানোর সময় প্রাচীন মন্দিরের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল। প্রাচীন মন্দিরটি হিন্দু শাহি আমলের বলে ধারণা করা হয়েছে।

ইতালি ও পাকিস্তানের প্রত্নতাত্ত্বিক বিশেষজ্ঞরা উত্তর পশ্চিম পাকিস্তানের সোয়াত শহরে খনন কার্য চালানোর সময় ১৩০০ বছর পুরানো হিন্দু মন্দিরের খোঁজ পেয়েছিলেন। এক রিপোর্ট অনুযায়ী, পশ্চিম পাকিস্তানের বারিকোট এলকায় খনন কার্য করার সময় প্রত্নতাত্ত্বিকবিদরা মন্দিরটি খুঁজে পেয়েছেন। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে মন্দিটি ভগবান বিষ্ণুর।

Related Articles

Back to top button