Press "Enter" to skip to content

চীনের তিনটি ব্যাঙ্ক এর প্রায় ১৫ হাজার কোটি টাকা ডুবিয়ে দিলেন অনিল আম্বানি! সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু ব্যাপক চর্চা

শেয়ার করুন -

ভারত ও চীনের ব্যাবসার মধ্যে একটা বড়ো অসামঞ্জস্য রয়েছে। চীন ভারতের বাজার থেকে প্রতি মুহূর্তে মোটা অংকের টাকা তুলে নেয়। অন্যদিকে ভারত চীনের বাজারে খুব বেশি লাভ তুলতে পারে না। এর কারণ ভারতীয়রা বাজারে চীনের পণ্য ব্যাপক মাত্রায় কেনে কিন্তু চীনা লোকজন তাদের বাজারে শুধুমাত্র চীনের পণ্য কিনে।

ফলে ভারতীয়রা পরোক্ষভাবে নিজের পায়ে নিজেই কুড়ুল মারে। তবে এসবের মধ্যে এখন একজন ভারতীয়র চর্চা খুব বেশি হচ্ছে যিনি চীনকে বড়ো ঝটকা দিয়েছেন। সেই ভারতীয়র নাম অনিল আম্বানি।

আসলে ২০১২ সালে অনিল আম্বানি চীনের ৩ টি ব্যাঙ্ক থেকে মোটা অঙ্কের লোন নিয়েছিলেন। এক রিপোর্ট অনুযায়ী উনি প্রায় ৭ হাজার কোটি টাকার লোন নিয়েছিলেন। বলা হচ্ছে সুদ নিয়ে সেই টাকা ১৫ হাজার কোটির ঘরে পৌঁছে যেতে পারে।

কিন্তু অনিল আম্বানি বিশাল মোটা অঙ্কের টাকা ফেরত ফিতে অস্বীকার করে দিয়েছেন। বিষয়টিতে ন্যায় পেতে চীনের ব্যাংক গুলি আন্তর্জাতিক আদালতে দারস্ত হয়েছে। তবে যেহেতু বিষয়টি আন্তর্জাতিক মামলা তাই চীন এক্ষেত্রে খুব বেশিদূর এগোতে পারবে না। সব মিলিয়ে অনিল আম্বানির কান্ড নিয়ে এখন বেশ চর্চা হতে শুরু হয়েছে।

কেউ কেউ মজা করে বলেছেন, অনিল আম্বানি একমাত্র ভারতীয় যিনি চীনকে একা হাতে ঝটকা দিয়েছেন। কেউ আবার হাস্যকর ভঙ্গিতে বলেছেন, ভারত সরকারের উচিত অনিল আম্বানিকে পুরস্কার দিয়ে সম্মানিত করা।