Press "Enter" to skip to content

মোদীর ভাষাজ্ঞান নেই! উনি একজন মহিলাকে বলছেন ‘দিদি ও দিদি” ওনার লজ্জা লাগা দরকারঃ অনুব্রত

শেয়ার করুন -

ভাতারঃ নরেন্দ্র মোদী নির্বাচনী প্রচারে এসে ‘দিদি ও দিদি” সম্বোধন করেছেন, আর এই নিয়েই এখন সরগরম রাজ্যের রাজনীতি। তৃণমূলের তরফ থেকে নরেন্দ্র মোদীর এই সম্বোধনের আপত্তি করা হয়েছে। এবার দিদির অনুগত্য সৈনিক অনুব্রত মণ্ডল নরেন্দ্র মোদীর এই সম্বোধনের পাল্টা দিলেন। বীরভূম জেলার তৃণমূল সভাপতি বলেন, ‘আমি যদি প্রধানমন্ত্রীকে ‘নরেন ও নরেন” বলি, তাহলে মানুষকি আমাকে ভালো বলবে?” অনুব্রত বলেন, প্রধানমন্ত্রীর কোনও ভাষাজ্ঞান নেই।

মঙ্গলবার তৃতীয় দফার নির্বাচনের দিনে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারে একটি সভা করেন অনুব্রত মণ্ডল। সেখান থেকে তিনি নরেন্দ্র মোদী ‘দিদি ও দিদি” সম্বোধন নিয়ে সরব হন। কেষ্ট বলেন, প্রধানমন্ত্রী একজন মহিলাকে বলছেন ‘দিদি ও দিদি” ওনার লজ্জা লাগা দরকার। ওনার কোনও ভাষাজ্ঞান নেই।

এর আগে সোমবার পূর্ব বর্ধমানের মেমারিতে দলীয় প্রার্থী মধুসূদন ভট্টাচার্যের সমর্থনে একটি সভা করেন অনুব্রত মণ্ডল। ওই সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তুমুল আক্রমণ করেন তিনি। অনুব্রত মণ্ডল ওই সভা থেকে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর দাড়ি যত বাড়ছে গ্যাস, পেট্রোল-ডিজেলের দামও তত বাড়ছে।

ওই সভা থেকে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে বেইমান ও মিথ্যেবাদী বলেও আক্রমণ করেন তিনি। অনুব্রত মণ্ডল বলেন, নরেন্দ্র মোদীর রাম রাজত্বে পেট্রোলের দাম ১০০ হয়ে গেছে। ১৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার আগে তিনি যা প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, সেটা কিছুই পূরণ করেন নি তিনি।

অনুব্রত নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে বলেন, আপনি আট বছরে কি করলেন আর দেখুন দিদি দশ বছরে কত কিছু করেছে। গোটা বাংলাকে এই দশ বছরে সাজিয়ে তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুব্রত মণ্ডল নরেন্দ্র মোদীকে আক্রমণ করে বলেন, তুমি মিড ডে মিলও বন্ধ করে দিয়েছ। আরেকদিকে মুখ্যমন্ত্রী চাল, ডাল, আলু, চিনি, ছোলা মিড ডে মিল সব দিয়েছেন। মোদী তুমি কোনও কাজই করোনি।