Press "Enter" to skip to content

সাধুহত্যাকাণ্ড ইস্যুতে সোনিয়া গান্ধীর পোল খুলে দেওয়ার পর অর্ণব গোস্বামীর উপর আক্রমন, অভিযোগ কংগ্রেসের গুন্ডাদের উপর

শেয়ার করুন -

পালঘর ঘটনা নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের নীরবতার পর সোশ্যাল মিডিয়ায় গর্জে উঠেছিল সাধারণ মানুষ। প্রশ্নঃ উঠেছিল অন্য ধর্মের লোকজন লিনচিং হলে তা নিয়ে তোলপাড় করা সংবাদ মাধ্যম, বুদ্ধিজীবী গ্যাং, মোমবাতি গ্যাং, বলিউড ব্রিগেড কেন চুপ।

মহারাষ্ট্রের পালঘর জেলায় দুই সাধুকে ও এক ড্রাইভারকে হত্যার তিন দিন পরেও মহারাষ্ট্রের সরকার, মিডিয়ার নিঃশ্চুপ ছিল। তবে পালঘরের ভিডিও ভাইরাল হতেই মহারাষ্ট্র সরকারের ঘুম উড়ে যায়।

কিছু সংবাদ মাধ্যম নিঃশ্চুপতা ভেঙে সরকারের উপর প্রশ্নঃ তোলে। যার মধ্যে রিপাবলিক মিডিয়া পালঘর ইস্যুকে কেন্দ্র করে বেশ শক্তভাবে সরকারকে ঘিরে ফেলে। রিপাবলিক মিডিয়ায় চীফ এডিটর অর্ণব গোস্বামী (Arnab Goswami) সোনিয়া গান্ধীকে আক্রমন করে বলেন, কেন আপনার পুলিশ সাধুদের মৃত্যুর মুখে ঠেলে দিল? তাহলে কি পুলিশের উপর কোনো চাপ ছিল?

অর্ণব গোস্বামী বলেন, “সোনিয়া গান্ধী তো গেরুয়া পছন্দ করেন না। সাধুদের গায়ে গেরুয়া বস্ত্র ছিল। তাই অপনি ভারত দেশকে জবাব দিন।” জানিয়ে দি,মহারাষ্ট্রের সরকার মবলিনচিংকারীদের ধর্ম নিয়ে বেশকিছুবার মন্তব্য করেছে। অর্নব গোস্বামী এর উপর প্রশ্নঃ তুলে বলেন, “আমরা তো সাধু হত্যার ন্যায় চেয়েছি এখানে সোনিয়া সরকার কেন অপরাধীদের ধর্ম টানছে? অন্য সময় লিনচিং হলে সাম্প্রদায়িকতা খুঁজে পান কিন্তু এখন কেন খুঁজে পাচ্ছেন না?

 

সোনিয়া গান্ধীর এমন পোল খোলার পর এবার অর্ণব গোস্বামী ও উনার স্ত্রীর উপর আক্রমন করা হয়েছে বলে খবর সামনে আসছে। কংগ্রেসের গুন্ডারা এই আক্রমন করেছিল বলে জানিয়েছেন অর্ণব গোস্বামী। রাত ১২.১৫ এর দিকে ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে। পুলিশের কাছে মামলা যাওয়ার পর ২ জন গুন্ডাকে গ্রেফতার হয়েছে।