আন্তর্জাতিকনতুন খবর

তালিবানের হাতে দেশ তুলে দিয়ে কেন পালাল? প্রথমবার প্রকাশ্যে এসে কারণ জানালেন আশরফ গনি

নয়া দিল্লিঃ আফগানিস্তান ছাড়ার পর রাষ্ট্রপতি আশরফ গনি বুধবার রাতে প্রথমবার বিশ্বের সামনে এসেছেন। তিনি জানিয়েছেন, কেন দেশ ছেড়েছেন। ওনার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগের মধ্যে গনি বুধবার রাতে সবার সামনে এসে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে জানান, উনি দেশ না ছাড়লে নরহত্যা হত। গনি জানান, আমি দেশকে এমন অবস্থায় দেখতে পারতাম না। তাই দেশ ছেড়েছি। গনি টাকা-গহনা নিয়ে পালানোর অভিযোগও খারিজ করেছেন।

টাকাপয়সা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগে গনি বলেন, এটা সম্পূর্ণ ভুয়ো আর ভিত্তিহীন। আমি দেশের টাকা নিয়ে আসিনি। আমি শান্তিতে ক্ষমতা হস্তান্তর চেয়েছিলাম। আফগানিস্তান ছেড়ে আমি নিজের দেশের মানুষকে খুন হওয়া থেকে বাঁচিয়েছি। গনি জানান, সুরক্ষার কারণে আমি আফগানিস্তান থেকে দূরে রয়েছি। নিরাপত্তা আধিকারিকদের পরামর্শের পরই আমি এই পদক্ষেপ নিয়েছি। আমেরিকার রাষ্ট্রপতি জো বাইডেনের বয়ান নিয়ে গনি বলেন, তালিবানের সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছিলাম, কিন্তু তা অসফল হয়।

নিজের ভিডিও বার্তায় গনি বলেন, আমাকে আমার ইচ্ছের বিরুদ্ধে দেশ থেকে বেদখল করা হয়েছে। যারা আমাকে পলাতক বলছে, তাঁরা আসল সত্য জানেন না। আমি যদি দেশে থাকতাম, তাহলে কাবুলে নরহত্যা চলত। এরকম অপ্রীতিকর ঘটনা থেকে বাঁচার জন্যই আমি দেশ ছেড়েছি।

বলে দিই, গনি এখন সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে আশ্রয় নিয়েছেন। আরবের রাজধানী আবুধাবিতে তিনি নিজের পরিবারের সঙ্গে রয়েছেন। ইউএই মানবতার ভিত্তিতে ওনাকে শরণ দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে। রবিবার ১৫ই আগস্ট তালিবানরা কাবুলে দখল জমাতেই আশরফ গনি দেশ ছাড়েন। ওনার বিরুদ্ধে প্রচুর টাকা-গহনা নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। যদিও, তিনি সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

Related Articles

Back to top button