নতুন খবরবিশেষ

ভিয়েতনামে খননকার্যে মিলল ১১০০ বছর পুরানো শিবলিঙ্গ! সমগ্র বিশ্বজুড়ে মিলছে হিন্দু সভ্যতার নিদর্শন

স্বামী বিবেকানন্দ বলতেন  হিন্দু হয়ে জন্মানো গর্বের বিষয়। উনি বার বার দেশবাসীকে উদেশ্য করে বলতেন- গর্বের সাথে বলো আমি হিন্দু। স্বামীজি এই কথা তখন বলেছিলেন যখন ভারত পরাধীন ছিল, যখন ভারত দেশকে পিছিয়ে পড়া এবং হিন্দুদের বিদেশীরা কুসংস্কারছন্ন মনে করতো। সেই সময় স্বামীজী যা বলে গিয়েছিলেন তা বর্তমানে পদে পদে মিলে যাচ্ছে এবং হিন্দু সমাজ তাদের সনাতন ধর্মের গৌরবকে আরো ব্যাপকভাবে বুঝতে ও চিনতে পারছে।

আজ বিশ্বে নানা ধৰ্ম থাকলেও সবথেকে প্রাচীন ধৰ্ম সনাতন হিন্দু ধৰ্ম। যার কারণে বিশ্বের যে কোনো প্রান্তে আজও খননকার্য করলে সনাতন ধর্মের প্রমান মেলে। তাতে সেটা ইরাক হোক যেখানে ৭ হাজার বছর পুরানো ভগবান শ্রী রাম ও হনুমানের কলাকৃতি পাওয়া যাক বা কম্বোডিয়া হোক যেখানে ২০ হাজার বছর পুরানো গণেশ মূর্তি পাওয়া যাক।

আর এখন ভিয়েতনামেও খনন কার্য করতে গিয়ে হাজার বছর পুরানো শিবলিঙ্গ পাওয়া গেছে। ভিয়েতনামে লোকজন নিজেদের কিছু বিশেষ কাজের খনন কার্য করেছিলেন। সেখানে তারা দেখেন গোলাকার কিছু একটা বস্তু মাটির নীচে রয়েছে। এরপর সাবধানতা অবলম্বন করে খনন করা হলে পূর্প শিবলিঙ্গের খোঁজ মেলে।

বলা হচ্ছে, শিবলিঙ্গটি ১১০০ বছর পুরানো। এর আগে ইন্দোনেশিয়ায় এমন শিবলিঙ্গের খোঁজ পাওয়া গেছিল। পুরো বিশ্ব থেকে পাওয়া এমন চিহ্ন ইঙ্গিত দেয় যে সমগ্র পৃথিবীতে একদিন সনাতন হিন্দু ধর্ম ছিল, যার কারণে বিশ্বজুড়ে হিন্দু সভ্যতার নিদর্শনের খোঁজ মিলছে। বিশ্বের সমস্ত জাতির পূর্বজও সম্ভবত হিন্দু সনাতনীরাই ছিল। পরে সময়ের সাথে সাথে অন্যান্য মানবনির্মিত ধর্মের উৎপত্তি ঘটে।

Related Articles

Back to top button