নতুন খবরভারতবর্ষ

অসমে পর পর ৪ টি গ্রেনেড বিস্ফোরণ! প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন কেঁপে উঠলো পুরো অসম

প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন একদিকে যখন পুরো দেশ এক হয়ে দেশের প্রতি, দেশের সংবিধানের প্রতি সন্মান জ্ঞাপন করছে তখন অসম থেকে এক চাঞ্চল্যকর খবর সামনে আসছে। পর পর ৪ টি গ্রেনেড বিস্ফোরণের দরুন সেরাজ্যের ডিব্রুগড়, গ্রাহাম বাজার সহ একাধিক জায়গায় বিস্ফোরণ ঘটেছে। এই বিস্ফোরণে মূলত ULFA সমর্থকদের হাত রয়েছে বলে অনুমান করা হচ্ছে। বিস্ফোরণের পরেই পুলিশ ও বাকি প্রশাসনিক অধিকারিকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন। এখনও অবধি কোন প্রাণ হানি বা হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

তবে পুলিশ আপাতত এই নিয়ে সক্রিয়ভাবে তদন্ত শুরু করেছে। সমস্থকিছু খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে। প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, কট্টরপন্থীরা অসমকে টার্গেট করে রেখেছে। শাহীন বাগের মাস্টারমাইন্ড JNU এর ছাত্র সারজিল ইমাম ভারতকে ভাঙার পুরো পরিকল্পনা করে ফেলেছে তা সে নিজের মুখেই প্রকাশ করেছে। সারজিল ইমাম ভিড়ের সামনে বলেছে ‘আমরা উত্তর-পূর্ব কে ভারত থেকে সম্পূর্ণ আলাদা করে দিতে পারি। সম্পূর্ণভাবে না পারলেও আমরা কিছুদিনের জন্য আলাদা তো করতেই পারি। আসাম কে আলাদা করা আমাদের দায়িত্ব।’

সারজিল ইমাম আরো বলেছে যে, আসাম ও ভারতকে আলাদা করতে হবে, কেটে আলাদা করতে হবে। এমত অবস্থায় অসমকে নিয়ে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাগুলিও সক্রিয় হবে তা নিয়ে সন্দেহ নেই। মাত্র কয়েকদিন আগেই মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল ও সেনার উপস্থিতিতে ৬৪৪ জন জঙ্গি আত্মসমর্পণ করেছিল।

২৩ শে জানুয়ারি জঙ্গিরা আত্মসমর্পণ করেছিল আর আজ প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন অসমে পর পর চারটি বিস্ফোরণ দেশকে ভাবিয়ে তুলেছে। CAA, NRC নিয়েও কট্টরপন্থীরা অসমকে ঊত্তপ্ত করার প্রয়াস করেছিল। অসমকে বিচ্ছিন্ন করার ষড়যন্ত্র নিয়ে সমস্থ ঘটনা ঘটছে নাকি অন্য কোনো ইস্যু রয়েছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Back to top button
Close