নতুন খবররাজনীতি

প্রধানমন্ত্রী হয়ে মন্দিরের উদ্বোধন করা সংবিধান বিরোধী! নরেন্দ্র মোদীর অযোধ্যা সফরের বিরোধিতায় বললেন ওয়াইসি

নয়া দিল্লীঃ হায়দ্রাবাদ থেকে লোকসভার সাংসদ তথা সর্বভারতীয় মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (All India Majlis-e-Ittehadul Muslimeen) এর প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (Asaduddin Owaisi) রামলালা মন্দিরের শিলন্যাস নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) সফরের বিরোধিতা করেছেন। ওয়াইসি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রামলালা মন্দিরের শিলন্যাসে যাওয়া সাংবিধানিক শপথের লঙ্ঘন হবে। দেশের সংবিধানের প্রধান অংশ হল ধর্মনিরপেক্ষতা।

আগামী মাসের পাঁচ আগস্ট রামলালা মন্দির ভূমি পূজনের অনুষ্ঠান হতে চলেছে। আর এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও অংশ নেবেন। শ্রীরাম জন্মভূমি ট্রাস্ট রাম মন্দির আন্দোলনের সাথে যুক্ত অনেককেই এই অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। কিন্তু করোনা মহামারীর জন্য এই অনুষ্ঠানে ২০০ এর বেশি মানুষ একত্রিত হতে পারবেন না।

AIMIM এর সভাপতি আসাদউদ্দিন ওয়াইসি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই সফর নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। উনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রামলালা মন্দিরের ভূমি পূজন অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়া সাংবিধানিক শপথের বিরুদ্ধে। ওয়াইসি ট্যুইট করে লেখেন, আমাদের দেশের সংবিধানের সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় হল ধর্মনিরপেক্ষতা। এছাড়াও ওয়াসি বলেন, আমরা এটাও ভুলতে পারব না যে বাবরি মসজিদ ৪০০ বছর ধরে অযোধ্যায় ছিল, কিন্তু ১৯৯২ সালে এই মসজিদকে বেআইনি ভাবে ভেঙে দেওয়া হয়।

আপনাদের জানিয়ে দিই, অযোধ্যায় বাবরি মসজিদের সমর্থনে আসাদউদ্দিন ওয়াইসি সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরেও আদালতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। শুধু উনিই না, বাবরি মসজিদের অনেক পক্ষকারই রাম মন্দিরের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আবারও মামলা করার কথা বলেছিল। এছাড়াও কিছুদিন আগে কংগ্রেস কর্মী হিসেবে পরিচিত সাকেত গোখলে রাম মন্দিরের ভূমি পূজনের বিরুদ্ধে এলাহাবাদ হাইকোর্টে পিটিশন দাখিল করেছিলেন। যদিও আদালত ওনার দাখিল করা পিটিশন খারিজ করে দেয়।

Back to top button
Close