নতুন খবরভারতবর্ষ

ধানবাদ স্টেশনে গ্রেফতার হলো এক অবৈধ বাংলাদেশি নাগরিক! ৪ হাজার টাকা দিয়ে করিয়েছে ভারতীয় ভোটার কার্ড, আধার কার্ড।

সাধারন মানুষের চোখে সেকুলারিজম এর চশমা পরিয়ে দেশকে যে অবৈধ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা দ্বারা পূর্ন করে দেওয়া হয়েছে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। দেশের নানা প্রান্ত থেকে অবৈধ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা কু-কৃত্য করতে গিয়ে প্রায় ধরে পড়ে। আজ ধানবাদ রেল স্টেশন থেকে একজন বাংলাদেশিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাংলাদেশি নাগরিক বিনা টিকিটে ট্রেনের মধ্যে ছিল। লক্ষণীয় বিষয় এই যে, বাংলাদেশি নাগরিকদের কাছে থেকে ভারতীয় পরিচয়পত্র, ভোটার কার্ড পাওয়া গেছে।

অবৈধ বাংলাদেশি ১ বছরের ভিসা নিয়ে ভারতে এসেছিল। কিন্তু সে আর ভারত থেকে ফিরে যায়নি। বাংলাদেশি নাগরিকের কাছে বাংলাদেশের কিছু ডকুমেন্টও পাওয়া গেছে। সেখানে তার পরিচয়পত্র ইত্যাদি পাওয়া গেছে। সেখানে তার নাম বিল্লাল ও ঠিকানা তেজপুরের ওসমানী নগর লেখা রয়েছে। বিল্লাল একজন বাংলাদেশী বেসামরিক চিত্রশিল্পী। জিজ্ঞাসাবাদের সময় তিনি জানিয়েছিলেন যে ভারতের আধার এবং ভোটার কার্ড পেতে তিনি ৪ হাজার টাকা ব্যয় করেছিলেন। ভিসায় থাকা একজন কীভাবে ভারতের আধার এবং ভেটেরিনারিয়ান কার্ড তৈরি করেছে তা খতিয়ে দেখছে রেলওয়ে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদে বিলাল জানান যে তার ভাই কমলউদ্দিন লখনউয়ের মহানালাল কারাগারে বন্দী আছেন। তিনি তার জামিনের বিষয়ে কথা বলতে গেছিলেন। অমৃতসর-কলকাতা দুর্গিয়ানা এক্সপ্রেস পশ্চিমবঙ্গের দিকে যাচ্ছিল। এরই মধ্যেই এক টিটি উনাকে ধরে ফেলেন। এরপর টিটির সন্দেহ হলে তাকে রেল পুলিশের কাছে তুলে দেয়। যারপর জানা যায় যে সে একজন অবৈধ বাংলাদেশি নাগরিক।

জানিয়ে দি, এইভাবে ভারতে এখন লক্ষ লক্ষ অবৈধ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা মুসলিম রয়েছে। কিছু সময় আগে জম্মুতে থাকা নাসির হোসেন নামের এক রোহিঙ্গার খবর বেশ শিরোনামে এসেছিল। নাসির হোসেনের ৩ টি গর্ভবর্তী বিবি ও ১০ টি ছেলে মেয়ে রয়েছে। কিন্তু সে মায়ানমারে ফিরে যেতে চাই না। নাসির হোসেন দাবি করেছিল ভারত সরকার তাকে নাগরিকত্ব দিক। প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, ভারতে এখন CAA ও NRC নিয়ে ব্যাপক চর্চা চলছে। দেশের নানা প্রান্তে কিছু রাজনৈতিক দলের সাথ দিয়ে অবৈধ বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গারাও উপদ্রব শুরু করেছে।

Related Articles

Back to top button