বিশেষভারতবর্ষ

“আপনি হিন্দু আগে, না ভারতীয় আগে!”- প্রশ্নের দুর্দান্ত উত্তর দিয়েছিলেন যোগী আদিত্যনাথ

নিজেকে তথাকথিত অত্যাধিক সেকুলার দেখানোর চেষ্টায় ভারতের নেতাদের একের পর এক ভণ্ডামি করতে দেখা যায়। ভণ্ডামি রাজনীতির প্রবল অন্ধকারের মধ্যে যোগী আদিত্যনাথ যেন আলোর জ্যোতি, যিনি নিজের সততাকে রাজনৈতিক কুলষিত হওয়ার থেকে বাঁচিয়ে রেখেছেন। আর এর প্রমাণ যোগী আদিত্যনাথের প্রতিটি কথাতে পাওয়া যায়।

দেশে এমন নেতা খুব কমই আছেন যারা খোলাখুলি নিজের বক্তব্য রাখেন। উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এমন নেতাদের মধ্যে পড়েন যিনি স্পষ্ট ভাষায় বার্তা দিতে পছন্দ করেন। দেশের বেশিরভাগ নেতা রাজনৈতিক ফায়দা বুঝে, ভারসাম্য বজায় রেখে ভাষণ দেন। তবে মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ভারসাম্য বজায়ের ঝামেলায় পড়েন না।

সম্প্রতি যোগী আদিত্যনাথের এক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যেখানে এক সাংবাদিক যোগী আদিত্যনাথকে প্যাঁচে ফেলার চেষ্টা করছিলেন। আসলে এক সাংবাদিক যোগী আদিত্যনাথকে প্রশ্ন করেছিলেন, “আপনার কাছে দেশ আগে না ধৰ্ম আগে। আপনি আগে ভারতীয় নাকি আগে হিন্দু?” লক্ষণীয় যে সাংবাদিকের এই প্রশ্নের এমন যুক্তি-সঙ্গত উত্তর দিয়েছিলেন যোগী আদিত্যনাথ, যা শুনে একেবারে স্তব্ধ হয়েছিলেন সাংবাদিক।

যোগী আদিত্যনাথ সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে বলেন, “ভারতীয় এবং হিন্দু একই শব্দের দুটি রূপ। ভারতীয় আমার ভৌগোলিক পরিচয় অন্যদিকে হিন্দু আমার সংস্কৃতিতিক পরিচয়। তাই আমি মনে করি দুটোর মধ্যে কোনো ভেদ নেই। ” যোগী আদিত্যনাথ আরো বলেন, “আমি হিন্দু একই সাথে আমি ভারতীয়।” প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, হিন্দুরা ভারত দেশকে মাতা রূপে দেখে। আর হিন্দু ধর্মকে ভারত মাতার আত্মা বলে মনে করা হয়।

Related Articles

Back to top button