নতুন খবরভারতবর্ষ

‘ভাগ্যনগরের ভাগ্য বদলানো শুরু” হায়দ্রাবাদ পুর নির্বাচনে ৪৮ টি আসনে পদ্ম ফোটার পর বলেলন যোগী আদিত্যনাথ

হায়দ্রাবাদঃ গ্রেটার হায়দ্রাবাদ পুরসভার নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি ১২ গুণ আসন জিতে ৪৮ টি আসনে কবজা করে নেয়। এই নিয়ে উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ খুশি জাহির করেছেন। উনি ট্যুইট করে লেখেন, ভাগ্য নগরের ভাগ্য বদলানো শুরু হয়ে গিয়েছে।

আপনাদের জানিয়ে দিই, হায়দ্রাবাদ পুরসভার নির্বাচনের ফলাফল ত্রিশঙ্কু হয়ে গিয়েছে। ক্ষমতায় থাকা তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতি ৯৯ টি আসন থেকে সরাসরি ৫৫ টি আসনে চলে এসেছে। আরেকদিকে আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল গতবারের ৪৪ টি আসন ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। কংগ্রেসকে মাত্র দুটি আসনেই সন্তুষ্ট থাকতে হয়েছে।

উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বলেন, হায়দ্রাবাদ পুরসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে অভূতপূর্ব সাফল্য পেয়েছে, এরজন্য ভাগ্যনগরের জনতাকে কোটি কোটি ধন্যবাদ। জানিয়ে দিই, মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বিজেপির স্টার প্রচারক হিসেবে রোড শো আর র‍্যালি করে বিরোধীদের একহাতে নিয়েছিলেন। যোগী আদিত্যনাথের ব্যাপক জনপ্রিয়তার কারণে বিজেপির প্রতিটি সভায় মানুষের ঢল দেখা গিয়েছিল। যোগী আদিত্যনাথ হায়দ্রাবাদে নির্বাচনী জনসভা থেকে ঘোষণা করেছিলেন যে, যখন ফৈজাবাদের নাম অয্যোধ্যা হতে পারে, তখন হায়দ্রাবাদের নাম ভাগ্য নগর কেনও হতে পারবে না?

২০১৬ সালের নির্বাচনে বিজেপি হায়দ্রাবাদে মাত্র ৪ টি আসন পেয়েছিল। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) বিজেপির এই বাম্পার জয়ে তেলেঙ্গানার মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাও তেলেঙ্গানার মানুষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এর সাথে বিজেপির কর্মীদের এই জয়ের শ্রেয় দিয়েছেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ GHMC নির্বাচনে বিজেপির অভূতপূর্ব জয়ের পর তেলেঙ্গানার মানুষদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। ট্যুইট করে অমিত শাহ লেখেন, ‘প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ভারতীয় জনতা পার্টির উন্নয়নের রাজনীতিতে বিশ্বাস করার জন্য তেলেঙ্গানার জনতাকে ধন্যবাদ জানাই। GHMC অভূতপূর্ব প্রদর্শনের জন্য শ্রী জেপি নাড্ডা আর তেলেঙ্গানা বিজেপি সভাপতি শ্রী বন্দি সঞ্জয় কুমারকে শুভেচ্ছা জানাই। আমি তেলেঙ্গানার বিজেপির কর্মীদের তাদের কঠিন পরিশ্রমের জন্য প্রশংসা করি।”

বিজেপি GHMC নির্বাচনে ইতিহাস সৃষ্টি করে ৪৮ টি আসনে জয় হাসিল করে। আর ২০১৬ সালে ৯৯ টি আসনে জয়লাভ করা তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতির খাতায় এবার মাত্র ৫৫ টি আসন আসে। আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দল ৪৩ টি আসনে জয়লাভ করে। গতবারের নির্বাচনের তুলনায় এবার তাদের মাত্র একটি আসনের ক্ষতি হয়েছে। যদিও এই নির্বাচনে সবথেকে বেশি লাভ বিজেপিরই হয়েছে। বিজেপি গতবারের নির্বাচনে মাত্র ৪ টি আসন দখল করতে সক্ষম হয়েছিল।

এই নির্বাচনে ৪৮ টি আসনে পদ্ম ফুটেছে। তবে কারোর একার দখলে যায়নি হায়দ্রাবাদ পুরসভা। ধরে নেওয়া হচ্ছে যে, তেলেঙ্গানা রাষ্ট্রীয় সমিতি আসাদউদ্দিন ওয়াইসির দলের সাথে মিলে পুরসভা দখল করবে। আরেকদিকে, এই নির্বাচনে বাম্পার জয়ের সাথে সাথে বিজেপি দক্ষিণের রাজ্যে নিজেদের ভীত আরও মজবুত করার প্রচেষ্টা চালানো শুরু করবে।

Related Articles

Back to top button