Press "Enter" to skip to content

বড় সিদ্ধান্ত নিলেন অমিত শাহ, নতুন করে ম্যাপিং করে সিল করা হবে বর্ডার সংলগ্ন এলাকা

শেয়ার করুন -

পাকিস্তান (Pakistan) আর বাংলাদেশের (bangladesh) সীমান্তকে পুরোপুরি সিল করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক (home Ministry) একটি বড় সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সরকার দেশের সমস্ত প্যারামিলিটারি ফোর্সকে আদেশ দিয়েছে যে, তাঁরা যেন বর্ডার সংলগ্ন এরিয়া আরও একবার ম্যাপিং করে, আর এটা যেন খতিয়ে দেখা হয় যে, কোন কোন রাস্তা দিয়ে ভারতীয় সীমায় (Border) স্মাগলিং এর ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে। কেন্দ্র সরকার এই সমস্ত রাস্তা গুলোর নিরাপত্তা খতিয়ে দেখে সেগুলোকে সম্পূর্ণ রুপে সিল এবং সেগুলোর উপর কড়া নজরদারি চালানোর পরিকল্পনা নিয়েছে। এমনকি সীমান্তে ফেন্সিং আরও মজবুত করা হচ্ছে।

গত মাসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) এই ইস্যু নিয়ে একটি বড় বৈঠক করেন, ওই বৈঠকে প্যারা মিলিটারি ফোর্সের ডিজি, আইবি চীফ, র, সিবিআই এবং কাস্টমস এর আধিকারিকরা উপস্থিত ছিলেন। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ সমস্ত প্যারামিলিটারি ফোর্সকে নির্দেশ দিয়েছেন যে, পায়ে হেঁটে হোক আর বাইকের মাধ্যমেই হোক, সীমান্তে পুনরায় ম্যাপিং করতে হবে, আর দরকার পড়লে এই বিষয়ে রাজ্য পুলিশদের সাহায্য নিতে হবে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক বর্ডার এরিয়ার পুনরায় ম্যাপিং এর সাথে সাথে চোরচালান বন্ধ করার জন্য একটি বিশেষ টাস্ক ফোর্স বানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। টাস্ক ফোর্সে আইবি, সিবিআই, কাস্টম আর পুলিশের আধিকারিকদের যুক্ত করা হবে। এই টাস্ক ফোর্সের প্রধান লক্ষ্য হবে, চোরাচালানকারীদের বিরুদ্ধে তৎক্ষণাৎ পদক্ষেপ নেওয়া। পাঞ্জাব আর রাজস্থানে পাকিস্তানের তরফ থেকে প্রায় দিনই ড্রাগস স্মাগলিং হয়, আর সেটিকে বন্ধ করার জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এই দুই রাজ্যের সরকারের সাথে নতুন রণনীতি বানাচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এই নিয়ে লাগাতার পাঞ্জাব আর রাজস্থান সরকারের সাথে যোগাযোগ করে চলেছে।