নতুন খবরভারতবর্ষ

চীনের বিরুদ্ধে কড়া অ্যাকশন নেওয়ার জন্য তৈরি সেনা, সীমান্তে জারি চূড়ান্ত নির্দেশিকা

নয়া দিল্লীঃ চীনের সেনার (People Liberation Army) সাথে কথা বলে চুক্তি অনুযায়ী তাদের পোস্ট হটানোর কথাই বলতে গেছিল ভারতীয় জওয়ানরা (Indian Army)। কিন্তু চীন প্রতারকের মতো তিনগুন সেনা নিয়ে ভারতের উপরে ঝাঁপিয়ে পড়ে। হামলা চালানো হয় পাথর দিয়ে, ভারতের নিরস্ত্র সেনার উপর লোহার রড আর পেরেক লাগানো হাতিয়ার দিয়ে আক্রমণ করে চীন। যদিও তাতেও দমানো যায়নি ভারতের বীর জওয়ানদের। খালি হাতেও যে তাঁরা একজন ১০০ এর উপরে ভারি সেটা দেখিয়ে দিয়েছিল।

দুই পক্ষের সংঘর্ষে ভারতের ২০ জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন। আর চীনের ৪৩ জন জওয়ান মারা গেছে। যদিও চীন তাদের জওয়ানদের মৃত্যু নিয়ে মুখ খোলেনি। আর এটাই প্রথম না, এর আগেও ভারত চীন যুদ্ধে তাদের মৃত জওয়ানদের সংখ্যা নিয়ে সঠিক তথ্য দিয়েছিল না চীন। দুই পক্ষের সংঘর্ষের পর চীনের এক কর্নেলকে টেনে হিঁচড়ে ভারতীয় সীমায় এনে বন্দি করে রেখেছিল ভারত। আর চীনের সেনার লাশ চারিদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে ছিল। পরের দিন সকালে চীনের সেনার সেই লাশ হস্তান্তর করে দেন ভারতীয় জওয়ানরা।

শুধু তাই নয়, চীনের বিরুদ্ধে সেনাকে আরও আক্রমণাত্বক করতে নতুন আগ্নেয়াস্ত্র আর হাতিয়ার কিনতে সেনার জন্য এমার্জেন্সি ৫০০ কোটি টাকার ফান্ড ঘোষণা করেছে কেন্দ্র সরকার। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে, ভারতের অখণ্ডতাকে ভঙ্গ করতে চাইলে কাউকেই রেয়াত করা হবে না। আর সেনাও সীমান্তে লাগাতার নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করে চলেছে।

Related Articles

Back to top button