নতুন খবরভারতবর্ষ

ভারতের ৮১ কোটি রেশন গ্রাহকদের জন্য দুর্দান্ত সুযোগ মোদী সরকারের! ব্রাত্য বাংলা

নয়া দিল্লীঃ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান (Ram Vilas Paswan) জানান যে, রাষ্ট্রীয় খাদ্য সুরক্ষা আইন (NFSA) এর রেশন (Ration) গ্রাহকদের পৌষ্টিক তত্ব যুক্ত চাল উপলব্ধ করানোর জন্য কেন্দ্র সরকার ১৫ রাজ্যের প্রতিটি জেলায় রাইস ফর্টিকেশন এর পাইলট যোজনা শুরু করেছে। এই যোজনা অনুযায়ী, মহারাষ্ট্র, গুজরাট আর অন্ধ্রপ্রদেশের চিহ্নিত জেলা গুলোতে পোষ্টিক চাল বিতরণ শুরু হয়ে গিয়েছে। আপনাদের জানিয়ে দিই যে, NFSA অনুযায়ী দেশের মোট ৮১ কোটি রেশন গ্রাহকদের সস্তা চাল বিতরণ করা হয়।

পোষ্টিক চাল বিতরণের কাজ উড়িষ্যা আর উত্তর প্রদেশে খুব শীঘ্রই শুরু হতে চলেছে। অন্যান্য রাজ্য গুলোতেও এই কাজ শুরু করার জন্য বলা হয়েছে। আয়রন, ফলিক অ্যাসিড আর ভিটামিন B12 যুক্ত পুষ্টিকর চালের ফলে অপুষ্টি এবং রক্তাল্পতার সমস্যা দূর করা সম্ভব হবে।

পাসোয়ান ভারতীয় খাদ্য নিগম (FCI) কে সরকারি স্কিম অনুযায়ী, ভক্ষ্য শস্যের প্রয়োজন মেটানর জন্য চার মাসের ভক্ষ্য শস্য দেশের প্রতিটি কোনায় পৌঁছে দেওয়ার আদেশ দিয়েছে। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বর্ষার মরশুমে ট্রান্সপোর্ট নিয়ে তৈরি হওয়া সমস্যার সমাধান করার জন্যও FCI কে নির্দেশ দিয়েছে। আপনাদের জানিয়ে দিই, এই সুবিধা ‘এক দেশ, এক রেশন কার্ড” প্রকল্পের মধ্যে পড়বে। আর এই প্রকল্পে পশ্চিমবঙ্গের নাম নেই।

পাসোয়ান ট্যুইট করে জানিয়েছেন যে, বর্ষার মরশুম শুরু হচ্ছে। আর সেটার কথা মাথায় রেখে খাদ্য এবং সার্বজনীন বিতরণ বিভাগ আর FCI-কে আদেশ দেওয়া হয়েছে যে, দেশের প্রতিটি কোনায় আগামী চার মাসের পর্যাপ্ত ভক্ষ শস্য মিশন মুডে অতি সত্বর পাঠিয়ে দিতে। বৃষ্টির মরশুমে যাতে মানুষের সমস্যা না হয়, সেই জন্যই এই নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রবি মৌসম ২০২০-২১ এর জন্য নির্ধারিত ক্রয় লক্ষ্য অনুযায়ী কৃষকদের থেকে ধান আর গম কেনা হচ্ছে। FCI ১৩ জুন থেকে এখনো পর্যন্ত ৩৭৮.৪০ LMT গম কিনেছে। এছাড়াও ১১৬.২৪ LMT  ধান কেনার সাথে সাথে ২০১৯-২০ সিজনে এখনো পর্যন্ত মোট ৭৩৫.৮১ LMT ধান কেনা হয়ে গেছে।

১৪ জুন পর্যন্ত FCI ৪২৭৪ টি রেল র‍্যাকের মাধ্যমে ১১৯.৬৭ লক্ষ টন ভক্ষ শস্য বিভিন্ন রাজ্যে পৌঁছে দিয়েছে। সেগুলোর মধ্যে ৪২২৯ রেল র‍্যাকে ১১৮.৪২ লক্ষ টন খাদ্য শস্য গোদামে আনলোড হয়েছে। PMGKAY অনুযায়ী, বিতরণ করা ১২০ লক্ষ টন খাদ্য শস্যের মধ্যে ১১০.১৭ লক্ষ টন খাদ্য শস্য সমস্ত রাজ্য গুলো নিজের হাতে নিয়ে নিয়েছে।

Related Articles

Back to top button