নতুন খবরভারতবর্ষ

ডুমুরের ফুল হয়েছেন সিধু, সাতদিন বাড়ির চক্কর কাটল পুলিশ! কিন্তু মিলল না দেখা

নয়া দিল্লীঃ নির্বাচনী সভায় বিতর্কিত মন্তব্য করার মামলায় কংগ্রেস (Congress) নেতা নবজ্যোত সিং সিধুর (Navjot Singh Sidhu) বাড়ির সামনে সাতদিন বসে রইল বিহার পুলিশ (Bihar Police)। কিন্তু ওনার টিকিও খুঁজে পাওয়া যায়নি। অগত্যা পুলিশ টিমের নেতৃত্বে থাকা এসআই জনার্দন রাম সিধুর বাড়ির গেটে নিজের স্বাক্ষর করা একটি নোটিশ টানিয়ে দেন। ওনার ওই নোটিশ টানানোর উদ্দেশ্য হল, সিধু ওটা দেখে যেন বিহার পুলিশের সামনে আত্মসমর্পণ করেন।

সাব ইনস্পেকটর জনার্দন রাম বলেন, সমন পেপারে লেখা আছে আমরা এখান রোজ এসেছি কিন্তু কেউই বন্ড পেপার রিসিভ করেন নি। এবার আমরা সেই বন্ড পেপার দেওয়ালে লাগিয়ে দিয়ে যাচ্ছি। উল্লেখ্য, বিহার পুলিশ বিগত কিছুদিন ধরে সিধুকে জিজ্ঞাসাবাদ চালানোর জন্য ওনার বাড়ির চক্কর কাটছে, কিন্তু সাতদিন চক্কর কাটার পরেও সিধুর দেখা নাই।

এখন বড় প্রশ্ন হল, সিধু গেলো কোথায়? বিহার পুলিশ গত সাতদিন ধরে অমৃতসরে ওনাকে লাগাতার খুঁজে চলছে। কিন্তু এরপরেও সিধুকে নিয়ে কোন খোঁজ পাননি ওনারা। জানিয়ে দিই, বিহারের একটি জনসভায় প্রাক্তন ক্রিকেটার তথা পাঞ্জাব সরকারের মন্ত্রী নবজ্যোত সিং সিধু একটি ভাষণ দিয়ে বিপাকে পড়েন। নির্বাচনী প্রচারে একটি সম্প্রদায় বিশেষ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার জন্য বিহারের কাটিহারে ওনার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছিল।

আপাতত আদালতে এই মামলা চলছে। আর এই মামলার জন্য কাটিহার পুলিশ নিজেদের প্রক্রিয়া এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার প্রচেষ্টায় আছে। কিন্তু হাজার প্রচেষ্টার পরও তাঁরা এগোতে পারছে না। কারণ সিধু নিখোঁজ। আর তিনি পুলিশের সহযোগিতা করার জন্য প্রস্তুত না। নবজ্যোত সিং সিধু ২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের সময় কংগ্রেস প্রার্থী তারিক আনোয়ারের জন্য প্রচারে গেছিলেন। আর সেখানে তিনি আপত্তিজনক মন্তব্য করে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন।

Related Articles

Back to top button