নতুন খবরভারতবর্ষ

কৃষক আন্দোলনে যোগ দিতে দিল্লী বর্ডারে পৌঁছালেন শাহিনবাগের দাদি

নয়া দিল্লীঃ নাগরিকতা সংশোধন আইন আর রাষ্ট্রীয় নাগরিকতা রেজিস্টারের বিরোধিতার প্রধান মুখ শাহিনবাগের দাদি বিলকিস বানো (Bilkis Bano) এবার কৃষক আন্দোলনের (Farmers Protest) অংশ হয়ে উঠলেন। আজ তিনি কৃষক আন্দোলনে যোগ দেওয়ার জন্য সিঙ্ঘু বর্ডারে পৌঁছেছেন। উলেখ্য, সোমবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিলকিস বানোর একটি ভিডিও ভাইরাল (Viral Video) হয়। ভিডিওতে বিলকিস বানোকে কৃষকদের ধরনা স্থলে দেখা গিয়েছিল।

কঙ্গনা রানাওয়াত দাদিকে নিয়ে করেছিলেন বিতর্কিত ট্যুইট

ট্যুইটারে নেটিজেনরা কঙ্গনা রানাওয়াতকে ট্রল করা শুরু করে। ট্যুইটারে লাগাতার নেটিজেন কঙ্গনা রানাওয়াতকে দাদির কাছে ক্ষমা চাওয়ার দাবি করে আর এরপর থেকে কঙ্গনা রানাওয়াত ট্যুইটারে ট্রেন্ড করা শুরু করে। এসব তখন শুরু হয় যখন টাইম ম্যাগাজিন ২০২০ সালে ১০০ সবথেকে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের তালিকায় বিলকিস বানোর নাম যুক্ত করে। তখন এক ইউজার রাজধানীতে চলা কৃষকদের বিরোধিতার মধ্যে এক বয়স্ক মহিলার ছবি বিলকিস বানোর সাথে মিলিয়ে শেয়ার করে আর দাবি করে যে, ছবিতে দেখানো দুই মহিলা এক।

শাহিনবাগ থেকে শিরোনামে উঠে এসেছেন বিলকিস বানো

এটা নয় যে, বিলকিস বানো নাগরিকতা সংশোধন আইন নিয়ে শাহিনবাগে চলা প্রদর্শনে শুধুমাত্র বিশেষ মুহূর্ত গুলোতেই নজরে এসেছিলেন। তিনি সকাল থেকে রাত পর্যন্ত সেখানে ধরনায় বসেছিলেন। উনি নাগরিকতা সংশোধন আইনের বিরোধিতায় আয়োজিত ধরনায় শেষ পর্যন্ত থাকার কথা বলেছিলেন।

শাহিনবাগের দাদি নামে বিখ্যাত বিলকিস বানো উত্তরপ্রদেশের বুলন্দশহরের বাসিন্দা, কিন্তু আপাতত নিজের পরিবারের সাথে দিল্লীতে থাকেন। ওনার স্বামী কৃষক ছিলেন, কিন্তু তিনি অনেক বছর আগেই প্রয়াত হয়েছেন।

Related Articles

Back to top button