নতুন খবররাজনীতি

মহারাষ্ট্রে ফের গঠন হতে পারে বিজেপির সরকার, ফর্মুলা বাতলে দিলেন সুব্রামানিয়াম স্বামী

মহারাষ্ট্রে () এই সময় শিবসেনা (), এনসিপি আর কংগ্রেসের জোট সরকার চলছে। রাজনৈতিক অস্থিরতার পর শিবসেনা প্রধান উদ্ভব ঠাকরে () ২৮ নভেম্বর মুখ্যমন্ত্রী পদে শপথ নেন। মহারাষ্ট্রের নির্বাচনে সবথেকে বেশি আসন জেতার পরেও বিজেপি সরকার গঠন করতে অক্ষম হয়। দেবেন্দ্র ফড়নবিশের () শপথ নেওয়ার তিন দিনের মধ্যে উনি মুখ্যমন্ত্রী পদ থেকে ইস্তফাও দিয়ে দেন। কিন্তু এবার রাজ্যসভায় বিজেপির সাংস সুব্রামানিয়াম স্বামী () মহারাষ্ট্রে ফের বিজেপির সরকার গড়ার ফর্মুলা বাতলে দিলেন।

বুধবার মধ্যরাতে রাজ্যসভায় নাগরিকতা সংশোধন বিল পাশ হয়েছে। বিল পাশ হওয়ার পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সমেত বিজেপির অনেক নেতাই এটিকে ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত বলে আখ্যা দিয়েছেন। আর সেই ক্রমেই বিজেপির সাংস্পদ সুব্রামানিয়াম স্বামী ট্যুইট করে লেখেন, ‘এটা ভালো কথা যে, শিবসেনা নিজেদের হিন্দুত্ব বিচারধারা থেকে সরে আসেনি। নাগরিকতা সংশোধন বিলের বিরুদ্ধে ভোট করেনি শিবসেনা। এটাই প্রধান সময় যখন বিজেপি আর শিবসেনাকে নতুন করে কথাবার্তা বলা দরকার। তাঁরা চাইলে মুখ্যমন্ত্রী পদ আড়াই বছর লিখে রাখতে পারে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, লোকসভায় শিবসেনা নাগরিকতা সংশোধন বিলের পক্ষে ভোট করেছিল, কিন্তু বুধবার রাজ্যসভায় শিবসেনার সাংসদেরা ভোটিং এর ঠিক আগে ওয়াকআউট করেন। এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ রাজ্যসভায় শিবসেনার উপর আক্রমণ করে বলেন, ক্ষমতার জন্য অনেকেই রঙ বদলে ফেলেন। উনি বলেন, ‘ মাননীয় লোকসভায় শিবসেনা এই বিলের পক্ষে ভোট করেছিল, আমি শুধু এটাই জানতে চাই, আর মহারাষ্ট্রের জনতাও জানতে চায় যে একরাতে কি এমন ঘটল যে আজ শিবসেনা নিজেদের অবস্থান বদলে ফেলেছে।”

শোনা যাচ্ছে যে, শিবসেনা কংগ্রেসের চাপে এসে নিজেদের সিদ্ধান্তে বদল এনেছে, কিন্তু এরপরেও শিবসেনা ভোটে অংশ নেয়নি। তাঁদের এই সিদ্ধান্ত দেখায় যে, নাগরিকতা সংশোধন বিল নিয়ে তাঁরা অনেক কনফিউজড। তাঁরা না বিলের সমর্থন করেছে, আর না বিরোধ। মহারাষ্ট্রে তাঁদের জোট সরকারের উপর অনেক প্রশ্ন উঠছে।

Back to top button
Close