নতুন খবররাজনীতি

হিন্দুরা সহিষ্ণু আর ধৈর্যশীল, তবে গুজরাটের কথা ভুলে যাবেন না! ওয়ারিস পাঠানকে হুঁশিয়ারি বিজেপি নেতার

অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন () এর নেতা ের () ‘১৫ কোটি মুসলিম ১০০ কোটি হিন্দুকে শিক্ষা দেবে” বয়ানের প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে মহারাষ্ট্র বিজেপির () বিধান পার্ষদ () বলেন, গুজরাটে যা হয়েছিল, সেটা ভুলে যাবেন না।

গিরীশ ব্যাস বিধান পার্ষদ হওয়ার সাথে সাথে বিজেপির মুখপাত্রও। উনি মুসলিম সম্প্রদায়কে ওয়ারিস পাঠানের মতো মানুষকে বহিষ্কার করা আর তাঁকে শিক্ষা দেওয়ার আবেদন করেছেন। ব্যাস একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে শুক্রবার কথা বলার সময় বলেন, ‘এই দেশের যুব, দেশভক্ত আর বিজেপির প্রতিটি যুব ওয়ারিস পাঠানকে সেই ভাষায় জবাব দিতে পারে, যেই ভাষায় সে কথা বলেছে।”

উনি বলেন, ‘হিন্দুরা খুব সহিষ্ণু আর ধৈর্যশীল। কিন্তু এটার মানে এই না যে, আমরা কাউকে কিছু করতে পারব না। গুজরাটের কালুপুরে যা হয়েছিল, সেটা মনে আছে? সেটা যদি মনে থাকে, তাহলে মুসলিমরা আজ ওঠার সাহস দেখাবে না।”

আপনাদের জানিয়ে দিই, ব্যাস গুজরাটের গোধরা কাণ্ডের পর ২০০২ সালে হওয়া গুজরাট দাঙ্গার কথা মনে করিয়ে দিচ্ছিলেন। ওই দাঙ্গায় ১ হাজারেরও বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছিল, যার মধ্যে বেশিরভাগই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ছিল। উনি বলেন, ‘মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর উচিৎ পাঠানের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীর মামলা দায়ের করা। আর ভারত সরকারের উচিৎ পাঠানকে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়া।”

মহারাষ্ট্রের নাগপুরের বাসিন্দা নেতা ব্যাস পাঠানকে নাগপুরে যাওয়ার চ্যালেঞ্জ জানান। উনি বলেন, আমরা আপনার জন্য সমস্ত রকম ব্যবস্থা করে রাখব, আপনি কি ভাবছেন আমরা চুরি পড়ে আছি? আমরা আপনার সামনা-সামনি হওয়ার জন্য প্রস্তুত। কিন্তু আমরা চাই সমাজে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় থাকুক।”

Back to top button
Close