নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

আরামবাগে আক্রান্ত তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ, মুখ খুলে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন স্বামী সৌমিত্র খাঁ

কলকাতাঃ আজ তৃতীয় দফার ভোটের দিন হুগলির আরামবাগে আক্রান্ত হন তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা খাঁ। গ্রামবাসীরা তাঁর দিকে লাঠি, বাঁশ নিয়ে তেড়ে আসেন। শেষে ওনাকে জমির উপর দিয়ে দৌড়াতে হয়। তৃণমূল অভিযোগ করে জানায় যে, বিজেপির লোকেরা এলাকার মানুষকে ভোট দিতে দিচ্ছিল না অভিযোগ পেয়ে সুজাতা খাঁ এলাকার পরিদর্শনে যান। এরপর সেখানে ওনাকে বিজেপির লোকেরা বাঁশ নিয়ে তাড়া করে। এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। পুলিশের সঙ্গে বচসা বাঁধে সুজাতার। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে সুজাতা খাঁয়ের নিরাপত্তা রক্ষীরা তাঁকে চাষের জমি দিয়ে এলাকা থেকে বের করে নিয়ে যায়।

যদিও, বিজেপি সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে। বিজেপির তরফ থেকে বলা হয়েছে যে, এই ঘটনার তাঁদের কোনও হাত নেই। সুজাতা খাঁ নিজে এলাকায় গিয়ে ভোট প্রভাবিত করার চেষ্টা করছিলেন, আর তাতেই ক্ষেপে যায় এলাকাবাসী। এরপর তাঁরা সুজাতা খাঁ কে লাঠি, বাঁশ নিয়ে তাড়া করে। স্থানীয়দের জনরোষের শিকার হয়েছে সুজাতা। বিজেপির সঙ্গে এই ঘটনার কোনও যোগ নেই।

সুজাতা খাঁ বলেন, আরামবাগের ২৬৩ নং বুথ দখল করে রেখেছিল বিজেপির লোকেরা। এলাকার মুসলিম মা-বোনেদের হুমকি দিচ্ছিল। তপশিলি জাতি উপজাতিদের ভোট দিতে দিচ্ছিল না বিজেপি। তিনি বলেন, পুলিশও বিজেপির হয়ে কাজ করছে। বিজেপির লোকেরা চ্যালাকাঠ দিয়ে আঘাত করে আমার মাথা ফুলিয়ে দিয়েছে।

আরেকদিকে, এই ঘটনায় প্রথম প্রতিক্রিয়া দেন বিজেপির সাংসদ তথা যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ। তিনি বলেন, ‘এতবছর ধরে তৃণমূল যা অত্যাচার করে এসেছে, আজ মানুষ তাঁর জবাব দিচ্ছে।” সৌমিত্র খাঁ বলেন, ‘বিগত ১০ বছর ধরে ওই এলাকায় তৃণমূল ভোট দিতে দেয় নি সাধারণ মানুষদের। আর এবার সেই মানুষই তৃণমূলের বিরুদ্ধে চটে গিয়ে এই কাজ করেছে। এতে বিজেপির কোনও হাত নেই।” নির্বাচনের দিনে স্ত্রীর আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়ার পর স্বামী সৌমিত্র খাঁ প্রতিবাদ না করায় চটে যান সুজাতা খাঁ। তিনি বলেন, ওঁর মাথা খারাপ হয়ে গেছে।

Related Articles

Back to top button