নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

ভারত কেশরী শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের স্মরণে ‘পশ্চিমবঙ্গ দিবস” ঘোষণার দাবি বিজেপির

কলকাতাঃ বিধানসভা ভোটে পরাজয়ের সম্মুখীন হতে হয়েছে বিজেপিকে (Bharatiya Janata Party)। তবে ২০১৬-র নির্বাচনের তুলনায় অনেক ভালো ফল করেছে তাঁরা। তাই, সহজেই আত্মসমর্পণ করতে চাইছে না বঙ্গ (West Bengal) বিজেপি। একুশের নির্বাচনে যেই বিজেপির গায়ে ‘বহিরাগত” তকমা লাগিয়ে জোরকদমে প্রচার চালিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, এবার সেই বিজেপিই বাঙালি আবেগকে হাতিয়ার করে পশ্চিমবঙ্গ দিবস ঘোষণা করার দাবি জানাচ্ছে। কিন্তু এখন প্রশ্ন উঠছে যে, বরাবরই বাংলা নিয়ে সরব হওয়া মুখ্যমন্ত্রী কী বিজেপির এই দাবি পূরণ করবে? না কি চিরাচরিত ভাবে বিজেপির বিরোধিতা করবে?

বিজেপির সাংসদ, বিধায়ক এবং নেতা কর্মীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি অভিযান চালু করেছে। ওই অভিযানের মূল লক্ষ্য হল ;পশ্চিমবঙ্গ দিবস ঘোষণা”। ফেসবুক, টুইটারে বিজেপি পশ্চিমবঙ্গ দিবস ঘোষণা করার জন্য জোরকদমে প্রচার চালাচ্ছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় #PoschimbongoDibos লিখে ট্রেন্ড করানোর চেষ্টাও চালানো হচ্ছে বিজেপির পক্ষ থেকে। আর এই কর্মসূচির প্রধান মুখ করে রাখা হয়েছে জনসংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে।

বিজেপির সাংসদ অর্জুন সিংহ একটি টুইট করে লিখেছেন, ‘এটি পশ্চিমবঙ্গের সব মানুষের আশা-আকাঙ্খার দিন। সেদিন যদি মোহাম্মদ অলি জিন্নার কবল থেকে আমাদের শ্রদ্ধেয় ড. শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় পশ্চিমবঙ্গকে ছিনিয়ে না আনতেন আজ তাহলে বাঙালি হিন্দুদের কোনও অস্তিত্ব থাকতো না।” কোচবিহারের বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকও পশ্চিমবঙ্গ দিবসের দাবিতে টুইট করেছেন।

বিজেপির যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ একটি টুইট করে লিখেছেন, ‘আজ পশ্চিমবঙ্গ দিবসে সকলকে অনেক অনেক শুভেচ্ছা ও শুভকামনা। আজ ভারতমাতার বীর সন্তান শ্রদ্ধেয় শ্যামাপ্রসাদ মুখার্জিকে স্মরণ করি এবং শ্রদ্ধা জানাই।” বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষও পশ্চিমবঙ্গ দিবসের দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন।

Related Articles

Back to top button