নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

‘নন MLA” মুখ্যমন্ত্রীকে হারানোই লক্ষ্য, রাজ্যসভায় প্রার্থী দিচ্ছে না বিজেপি! ঘোষণা শুভেন্দুর

কলকাতাঃ ভবানীপুর নিয়ে শাসক-বিরোধী দুই দলই জোরকদমে প্রচার চালাচ্ছে। আজ থেকে ঠিক ১০ দিনের মাথায় ভবানীপুর সহ রাজ্যের তিন কেন্দ্রে ভোট হতে চলেছে। ফলাফল ঘোষণা হবে আগামী ৩ অক্টোবর। একদিকে তৃণমূল যেমন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জয়ী করে ওনাকে ফের মুখ্যমন্ত্রী বানানোর জন্য কোমর বেঁধে নেমেছে। তেমনই বিজেপি নন এমএলএ মুখ্যমন্ত্রীকে আবারও হারানোর পরিকল্পনায় প্রচার চালাচ্ছে।

অন্যদিকে আগামী দিনে রাজ্যে একটি রাজ্যসভার আসনেও নির্বাচন হতে চলেছে। তৃণমূল বিধায়ক মানস ভুঁইয়ার ছেড়ে যাওয়া রাজ্যসভার আসনে ভোট হবে। তৃণমূলের তরফ থেকে ওই আসনের জন্য সদ্য কংগ্রেস ছেড়ে ঘাসফুল শিবিরে যোগ দেওয়া অসমের নেত্রী সুস্মিতা দেবকে মনোনীত করা হয়েছে।

তবে বিজেপি গতবারের মতো এবারও রাজ্যসভার নির্বাচনে প্রার্থী দেবে না বলে ঘোষণা করেছে। রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী একটি টুইট করে স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন যে, বিজেপি আগামী রাজ্যসভার নির্বাচনে প্রার্থী দেবে না। এর বদলে বিজেপি ভবানীপুরে নন এমএলএ মুখ্যমন্ত্রীকে আবারও হারানোর দিকে মন দেবে। টুইটের শেষে ‘জয় মা কালী”ও লিখেছেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক।

শুভেন্দু অধিকারীর এই বয়ানের পর এটুকু পরিস্কার যে তৃণমূল গতবারের মতো এবারেও বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বীতায় রাজ্যসভার সাংসদ পেতে চলেছে। এর আগে দীনেশ ত্রিবেদীর ছেড়ে যাওয়া আসনে জওহর সরকারকে মনোনীত করেছিল তৃণমূল। সেবারও শাসক দল বিনা প্রতিদ্বন্দ্বীতায় জয়লাভ করেছিল। বিজেপি সেবারও প্রার্থী দেয়নি।

তবে শুভেন্দু অধিকারীর এই ঘোষণা নিয়ে প্রশ্ন তুলছে ওয়াকিবহাল মহল। বিশেষজ্ঞদের মতে, ভবানীপুর কেন্দ্রে উপনির্বাচনে জোর দেওয়ার জন্য না, রাজ্যসভায় শাসক দলের প্রার্থীকে হারানোর মতো ক্ষমতা না থাকার কারণেই বিজেপি পিছু হটেছে। অন্যদিকে ভবানীপুর নির্বাচনের আগে বিজেপির ‘জয় শ্রী রাম” ধ্বনির বদলে ‘জয় মা কালী” ধ্বনি দেওয়াকেও বেশ তাৎপর্যপূর্ণ বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

Related Articles

Back to top button