Press "Enter" to skip to content

তৃণমূল নেতার বাড়িতে বোমা বাঁধার সময় বিস্ফোরণ, চরম নৃশংসতায় কাঁপল এলাকা

শেয়ার করুন -

মল্লারপুরঃ বোমা বিস্ফোরণে গুরুতর আহত এক ব্যক্তি। অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় তৃণমূল (tmc) নেতার বাড়িতেই বোমা বাঁধার কাজ করতে গিয়ে আহত হন ওই ব্যক্তি। সঙ্গে আরও কয়েকজনের নিহত হওয়ার আশঙ্কা করলেও, পুলিশ আসার আগেই ঘটনাস্থল পরিষ্কার করে ফেলা হয় বলে অভিযোগ স্থানীয়দের।

সোমবার রাতে বীরভূমের (Birbhum) মল্লারপুর এলাকার বানাশপুর গ্রামে এই দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার জেরে এলাকার এক তৃণমূল নেতাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে তৃণমূল নেতার দাবি, তাঁর বাড়িতে বোমা বাঁধার কাজ নয়, তাদের লক্ষ্য করে সেখানে বোমা ছোঁড়া হয়েছিল। তদন্ত করলেই সব জানা যাবে বলে দাবী জানিয়েছেন ওই তৃণমূল নেতা।

এপ্রসঙ্গে বিজেপির ময়ূরেশ্বর বি মণ্ডলের সভাপতি সুশান্তি দের অভিযোগ, ‘বোমা বিস্ফোরণের স্থানে ২ জন মারা গেলেও তৃণমূলের ব্লক সভাপতি তথা ময়ূরেশ্বর বিধানসভার প্রার্থী অভিজিৎ রায় তাদের দেহ সরিয়ে দিয়েছেন। ঠিক পঞ্চায়েত নির্বাচনের মতো সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে তৃণমূল’।

নিজেদের দিকে ওঠা অভিযোগ নস্মাৎ করে দিয়ে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি জানিয়েছেন, ‘ঘটনার বিষয়ে আমি শুনেছি। তবে তাঁরা সেখানে বোমা বাঁধছিল নাকি তাদের লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়া হয়েছে- তা তদন্ত করলেই জানা যাবে’। তবে এই ঘটনায় মল্লারপুর থানার পুলিশ আনাই শেখকে গ্রেফতার করেছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, সোমবার রাতে সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি আনাই শেখের বাড়িতে বোমা বাঁধার কাজ হচ্ছিল। সেইসময় এই বিস্ফোরণে আহত হন তৃণমূল কর্মী জার্মান শেখ। প্রথমে তাঁকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে পরবর্তীতে চিকিৎসার প্রয়োজনে তাঁকে বর্ধমানের হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। এখানে আরও কয়েকজন মারা গিয়েছিলেন। কিন্তু ঘটনার খবর পেয়ে মল্লারপুর থানার পুলিশ সেখানে পৌঁছানোর আগেই জায়গা পরিষ্কার করে ফেলা হয় বলে অভিযোগ।