Press "Enter" to skip to content

ইমরান সরকারের দুই বছর কার্যকাল সম্পূর্ণ হওয়া পর্যন্ত পাকিস্তানে ১০ জনের মধ্যে ৪ জন চলে যাবে দারিদ্র সীমার নীচে!

শেয়ার করুন -

পাকিস্তানের (Pakistan) তেহরিক এ ইনসান (PTI) এর সরকারের দুই বছর পূর্ণ হওয়ার পর ১ কোটি ৮০ লক্ষের বেশি মানুষ দারিদ্র সীমার নীচে চলে যাবে। আর এর প্রধান কারণ হল আর্থিক মন্দা আর দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি। এই দাবি দেশের প্রসিদ্ধ অর্থনীতিবিদ করেছেন। পাকিস্তানের প্রাক্তন অর্থ মন্ত্রী তথা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের (Imran Khan) উপদেষ্টা ডঃ হাফিজ পাশা বলেন (Dr Hafeez Pasha), ইমরান সরকারের প্রথম বছর শেষ হওয়ার পর ৮০ লক্ষ মানুষ দরিদ্র শ্রেণীতে চলে গেছে।

উনি অনুমান করে বলেন, এক কতিত বেশি মানুষ বর্তমান আর্থিক বছর সমাপ্ত হলে দারিদ্র সীমার নীচে চলে যাবে। পাশা মঙ্গলবার দ্য এক্সপ্রেস ট্রিবিউন কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘অনেক কম আর্থিক বৃদ্ধির দর আর দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারণে পাকিস্তানের বর্তমান অবস্থা খুবই ভয়াবহ। আর্থিক বৃদ্ধির হাল এতটাই খারাপ যে, দেশের জনসংখ্যা দরের সমান হয়ে গেছে।

যোজনা এবং বিকাশ মন্ত্রী আসাদ উমরের কাছে যখন এই ব্যাপারে ওনার প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়, তখন উনি বলেন, আমাদের কাছে নব্য দারিদ্র হয়ে যাওয়া মানুষের পরিসংখ্যান নেই। উমর বলেন, পিটিআই সরকার দারিদ্রতা দূরীকরণের জন্য অনেক কাজ করেছে। দরিদ্র এবং কমজোর মানুষদের রক্ষা করার জন্য ইমরান সরকার আগাগোড়াই চিন্তিত।

আসাদ উমর

পাশা বলেন, সরকার দ্বারা আয়করে বৃদ্ধি, বিদ্যুৎ শুল্কে বৃদ্ধি আর মুদ্রাস্ফীতি দারিদ্রতা বৃদ্ধির কাজ করেছে। পাশার মতে, আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত পাকিস্তানে ১০ জনের মধ্যে কমপক্ষে চার জন দরিদ্র শ্রেণীতে চলে যাবে।