Press "Enter" to skip to content

আইন ভেঙে পুলিশের হেফাজতে সিপিএম এর মহাসচিব সীতারাম ইয়েচুরি

শেয়ার করুন -

নাগরিকতা আইনের বিরুদ্ধে সমস্ত বাম দল আর মুসলিম সংগঠন আজ ভারত বন্ধের ডাক দিয়েছে। উত্তর প্রদেশ, বিহার সমেত বেঙ্গালুরুতেও এর প্রভাব নজরে পড়ে। বাম দলের ডাকা এই ভারত বন্ধে বিজেপি বিরোধীরা সমর্থন জানিয়েছে। আরেকদিকে, দিল্লীতে প্রদর্শন করা আপ নেতা যোগেন্দ্র যাদবকে লাল কেল্লা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

যোগেন্দ্র যাদব বলেন, পুলিশ এক হাজারের বেশি মানুষকে গ্রেফতার করেছে। জওহর লাল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রসঙ্ঘের প্রাক্তন নেতা উমর খালিদকেও গ্রেফতার করেছে পুলিশ। লাল কেল্লা থেকেই যোগেন্দ্র যাদব আর উমর খালিদকে গ্রেফতার করা হয়।

ভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টির মহা সচিব সীতারাম ইয়েচুরি মণ্ডি হাউসের পাশে নাগরিকতা আইন আর এনআরসি নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করছিলেন, দিল্লী পুলিশ ওনাকে মণ্ডি হাউসের সামনে থেকে গ্রেফতার করে। আরেকদিকে, ব্যাঙ্গালুরুতে নাগরিকতা আইনের বিরুদ্ধে প্রদর্শন করা ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহকে ব্যাঙ্গালুরু পুলিশ গ্রেফতার করেছে।

এই আইনের বিরোধিতায় কংগ্রেস নেতা আর কর্মীরাও রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ দেখাচ্ছে। কংগ্রেস নেতা সন্দীপ দীক্ষিত ওনার স্ত্রী মোনা সমেত অনেক নেতাদেরই হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। আরেকদিকে কংগ্রেসের মহাসচিব প্রিয়াঙ্কা গান্ধ বঢড়া মোদী সরকারকে আক্রমণ করছেন।

প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বলেন, মেট্রো স্টেশন বন্ধ। ইন্টারনেট বন্ধ, সব জায়গায় ১৪৪ ধারা লাগু করা হয়েছে। কোথাও আওয়াজ ওঠানোর অনুমতি নেই, যারা আজ ট্যাক্স পেয়ার্সদের পয়সা খরচ করে কোটি কোটি টাকার বিজ্ঞাপন লাগিয়ে মানুষকে বোঝানোর জন্য উঠেপড়ে লেগেছে, তাঁরাই আজ জনতার আওয়াজ শুনে এতটাই ভয় পেয়ে গেছে যে, তাঁরা জনতার আওয়াজ বন্ধ করে দিচ্ছে।