নতুন খবর

CAA এর বিরোধের নামে ISRO এর বাস আটকে দিল কট্টরপন্থীরা! রেগে লাল সাধারণ মানুষ।

মাত্র একদিন আগেই যোগী আদিত্যনাথ CAA বিলের বিরুদ্ধে থাকা উপদ্রবকারীদের দেশদ্রোহী বলে মন্তব্য করেছিলেন। আর এখন কেরালা থেকে এমন খবর আসছে যা দেখার পর সাধারণ মানুষজনও CAA এর বিরুদ্ধে প্রতিবাদকারীদের উপর ক্ষোভ দেখিয়েছে। আসলে কেরালায় ISRO এর একটা বাস রাস্তায় যাওয়ার সময় CAA এর বিরোধকারীরা বাস আটক করে। কেরালায় বেশ কিছু সংগঠন বাস, ট্রেন আটকে বেশকিছু জায়গায় CAA এর বিরুদ্ধে বিরোধ প্রদর্শন করেছিল। কিন্তু এখন CAA এর বিরুদ্ধে বিরোধিতা করতে গিয়ে ISRO এর বাস আটকে দেওয়া হয়।

জানিয়ে দি, ISRO এমন একটা সংগঠন যার জন্য ভারত গর্ব করে। দেশীয় স্যাটেলাইট লঞ্চ থেকে শুরু করে দেশের সুরক্ষা ব্যাবস্থা ও আন্তর্জাতিক স্যাটেলাইট লঞ্চ করেও নাম কামিয়েছে ISRO, দেশের অর্থব্যবস্থাকে শক্তিশালী করার পেছনেও ISRO এর বড়ো ভূমিকা রয়েছে। কিন্তু এখন CAA বিলের বিরোধের নামে ISRO এর বাস আটকে দেওয়াকে সাধারণ মানুষ কোনোভাবেই ভালো চোখে নিতে পারছেন।

কেরালার DYFI ও KSU সংগঠন রাজ্যজুড়ে ভিন্ন ভিন্ন এলাকায় বাস ও ট্রেন আটকনোর কাজ করেছে। CAA এর প্রতিবাদের দরুন মাঙ্গালুরুতে যোগাযোগ ব্যাবস্থা একেবারে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।ঠিরুভানান্থাপুরামে রেল ব্যাবস্থা সম্পুর্নভাবে বন্ধ হয়ে রয়েছে। কেরালার পরিবহন মন্ত্রী এ কে সসিনদ্রন বলেছনে আন্দোলন বন্ধ হলে তবে যোগাযোগ ব্যাবস্থা সঠিকভাবে চালু হবে। CAB বিল এখন আইনে পরিণত হয়েছে তবে এটা নিয়ে দেশে যে বিতর্ক চলছে তা থামার নাম নিচ্ছে না। অনেকে বলেছে যে CAB তে ধর্মের ভিত্তিতে ভেদাভেদ করা হচ্ছে।

দাবি করা হয়েছে পাকিস্তান ও বাংলাদেশ থেকে আগত মুসলিমদেরও ভারতে নাগরিকত্ব দেওয়ার হোক। CAB তে পাকিস্তান , বাংলাদেশ থেকে আগত হিন্দু, শিখ, জৈন, খ্রিষ্টানদের ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হবে। অর্থাৎ যারা ধার্মিক কারণে এই ইসলামিক দেশগুলিতে নিপীড়িত শোষিত তারা ভারতে নাগরিকত্ব পাবেন।

Related Articles

Back to top button