নতুন খবরভারতবর্ষ

চীনকে কড়া হুঁশিয়ারি CDS বিপিন রাওয়াতের, বললেন কথা না শুনলে আমাদের কাছে সেনা বিকল্প মজুত

নয়া দিল্লীঃ লাদাখের (Ladakh) গালওয়ান উপত্যকায় (Galwan Valley) ১৫ জুন ভারত আর চীনের সেনার মধ্যে হওয়া হিংসাত্মক লড়াইয়ের পর ভারত (India) লাগাতার চীনের সাথে সীমান্ত নিয়ে বিবাদ মেটানোর চেষ্টা করে চলেছে। আর এরমধ্যে ভারতের চীফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনেরাল বিপিন রাওয়াত (Bipin Rawat) চীনকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, লাদাখে চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির স্বভাবে পরিব্রতন না হলে আমাদের কাছে সেনা অভিযানের বিকল্প আছে।

জানিয়ে দিই, LAC তে ভারত সরকার প্রথম থেকেই চীনের সাথে কথাবার্তার মাধ্যমে সমস্যার সমাধানের জন্য পদক্ষেপ নিয়েছে। কিন্তু দুই পক্ষের ঢের বৈঠক হওয়ার পরেও সমস্যার সমাধান হয় নি। ভারতের তরফ থেকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল যে, চীনের যেকোন দুঃসাহসের যোগ্য জবাব দেওয়া হবে। রাওয়াত বলেন, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং, রাষ্ট্রীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত দোভাল আর রাষ্ট্রীয় সুরক্ষার সাথে জড়িত বড় বড় অফিসাররা সমস্ত রকম বিকল্পের সমীক্ষা করছেন।

চীনের সেনার সাথে ডোকালামে ২০১৭ সামে ৭৩ দিন পর্যন্ত চলা সৈন্য গতিরোধের সময় ভারতের সেনা প্রধান ছিলেন জেনারেল বিপিন রাওয়াত। তবে ডোকালাম আর লাদাখ দুটোর পরিস্থিতি ভিন্ন। ডোকালামের থেকে অনেক বেশি উত্তেজক লাদাখের পরিস্থিতি। এবং ভারত কোনমতেই লাদাখ থেকে পিছু হটবে না স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে। চীনকে কড়া বার্তা দিতে লাদাখে হাজার হাজার সেনার সাথে বড়বড় হাতিয়ার এবং লড়াকু বিমানও মোতায়েন করেছে ভারত।

আরেকদিকে চীন মুখে সমস্যার সমাধানের কথা বললেও, পিছনে ভারতকে অপদস্ত করার কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে চীন মানস সরোবরের পাশে মিসাইল মোতায়েন করার জন্য বেস বানানো শুরু করে দিয়েছে। এছাড়াও নেপালের সাথে হাত মিলিয়ে ভারতকে চাপে রাখার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। যদিও ভারত চীনের যেকোন দুঃসাহসের জবাব দেওয়ার জন্য প্রস্তুত।

Related Articles

Back to top button