নতুন খবরভারতবর্ষ

১০০ বা ৯০ নয়, মাত্র ৬০ টাকাতেই মিলবে পেট্রোল-ডিজেল, নয়া নিয়ম লাগু করছে কেন্দ্র

নয়া দিল্লিঃ গত পরশু পর্যন্ত প্রতিদিনই বেড়ে চলেছিল পেট্রোল (Petrol), ডিজেলের (Diesel) মূল্য। ভারতে (India) সমস্ত রেকর্ড ছাড়িয়েছিল জ্বালানীর তেলের দাম। তবে, দীপাবলির মধ্যে সাধারণ মানুষকে কিছুটা স্বস্তি দিয়ে পেট্রোল-ডিজেলে কর ছাড়ের ঘোষণা করেছিল কেন্দ্র। যার জেরে বৃহস্পতিবার থেকে দেশজুড়ে পেট্রোলে ৫ টাকা ও ডিজেলে ১০ টাকা কমে যায়। এরপর বিভিন্ন রাজ্য নিজেদের মতো কর ছাড় দিয়ে তেলের দাম আরও কমিয়ে মানুষকে বড় স্বস্তি দিয়েছিল। যার ফলে এই চরম মূল্যবৃদ্ধির মধ্যে সামান্য স্বস্তি পাবে জনতা। তবে এটি কোনও স্থায়ী সমাধান নয়।

দেশজুড়ে পেট্রোল, ডিজেলের নির্ভরতা কমাতে স্থায়ী সমাধানের পথে হাঁটছে কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় পরিবহনমন্ত্রী নীতিন গডকরি জানিয়েছেন আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই সমস্ত নতুন গাড়িতে ফ্লেক্স ফুয়েল ইঞ্জিন বাধ্যতামূলক করার দিকে এগোচ্ছে কেন্দ্র। এই নিয়ম যদি লাগু হয়, তবে দেশবাসী অনেকটাই স্বস্তি পাবে। তাঁরা পেট্রোল-ডিজেলের বদলে একটি বিকল্প জ্বালানী হাতে পাবে, যা দামে অনেক কম।

ফ্লেক্স ফুয়েল হল গ্যাসোলিন এবং মিথানল বা ইথানলের মিশ্রণ থেকে তৈরি একটি বিকল্প জ্বালানী। একটি ফ্লেক্স ইঞ্জিন মূলত একটি আদর্শ পেট্রোল ইঞ্জিন। আর সেই কারণে এই ইঞ্জিন ব্যবহার করলে অন্তত প্রত্যেক লিটারে অনেকটাই সাশ্রয় পাবে জনতা।

নীতিন গডকরি জানিয়েছেন, আগামী ছয় মাসের মধ্যেই এই নতুন নিয়ম লাগু করার কথা ভাবছে কেন্দ্র। কেন্দ্র সরকার সমস্ত অটোমোবাইল কোম্পানিগুলিকে অনুরোধ করবে তারা যেন ফ্লেক্স ফুয়েল ইঞ্জিন ব্যবহার করেন। কেন্দ্র যদি এই নিয়ম অনিবার্য হিসেবে লাগু করে, তবে জ্বালানীর দাম ৬০ টাকা প্রতি লিটারে চলে আসবে। এরফলে মানুষের পকেটে চাপ অনেকটাই কমবে।

সাধারণত এক লিটার ইথানল ৮০০ গ্রাম পেট্রোলের সমান কাজ করে। এছাড়া এই বিশেষ ইঞ্জিন বৈদ্যুতিক শক্তি তথা সিএনজি, বায়ো-এলএনজিকেও জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করতে পারবে। তাছাড়া এর দূষণও পেট্রোলের তুলনায় অনেকটাই কম। বলা হচ্ছে এর মাধ্যমে সাধারণ মানুষ দামি পেট্রোল ও ডিজেল থেকে মুক্তি পাবেন এবং যানবাহনের জ্বালানি প্রতি লিটারে মাত্র ৬০ টাকাই খরচ করতে হবে আমজনতাকে। কেন্দ্রের তরফ থেকে জানানো হয়েছে ফ্লেক্স ফুয়েল ইঞ্জিন নিয়ে নিয়মিত কথাবার্তা চলছে।

Related Articles

Back to top button