Press "Enter" to skip to content

ইসরো প্রধান কে. সিবান বললেন, শুধু চন্দ্রযান-৩ না ২০২০ সালে আরও ২৫ টি গুরুত্বপূর্ণ অভিযান করব আমরা

শেয়ার করুন -

মহাকাশে ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা (ISRO) আরও একবার ইতিহাস তৈরির জন্য পদক্ষেপ নিলো। বুধবার ইসরোর প্রধান কে. সিবান (K. Sivan) বলেন, সরকার চন্দ্রযান-৩ এর জন্য সম্মতি জানিয়েছে। আমরা এই পরিকল্পনায় দ্রুত গতিতে কাজ করছি। উনি বলেন, আরেকটি স্পেস পোর্টের জন্য জমি অধিগ্রহণ শুরু হয়েছে। এই পোর্ট তামিলনাড়ুর থুথুকডিতে হবে।

সিবান বলেন, ‘আমরা এই বছরে ২৫ টির বেশি মিশন করার পরিকল্পনা নিয়েছি। চন্দ্রযান-৩ নিয়ে দ্রুত গতিতে কাজ চলছে। আর এর সাথে সাথে গগনযান নিয়েও কাজ চলছে। আমরা ২০১৯ এ গগনযানের জন্য অনেক প্রগতি করেছি।” উনি বলেন, আমরা চন্দ্রযান-২ এও অনেক উন্নতি করেছিলাম। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমরা সফট ল্যান্ডিং করতে ব্যর্থ হই। উনি বলেন, চন্দ্রযান-২ এর অর্বিটর ঠিকঠাক কাজ করছে, আর আগামী ৭ বছর পর্যন্ত পৃথিবীতে তথ্য পাঠাবে এই অর্বিটর।

এর আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং মঙ্গলবার বলেছিলেন, ভারত ২০২০ সালে চন্দ্রযান-৩ লঞ্চ করবে। উনি জানিয়েছিলেন যে, এই অভিযানে চন্দ্রযান-২ এর থেকেও কম খরচ হবে। প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের রাজ্য মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং বলেন, চন্দ্রযান-২কে বিফল অভিযান বলা ভুল হবে। কারণ চাঁদের মাটিতে পা রাখা এটা আমাদের প্রথম মিশন ছিল। প্রথম মিশনে কোন দেশেই সফল হয়নি। আমেরিকাও অনেকবার চেষ্টা করার পর সফল হয়েছে।