Press "Enter" to skip to content

ধর্মনিরপেক্ষতার জন্য ছাপাক সিনেমায় অ্যাসিড হামলাকারীর নাম নদীম থেকে হয়ে গেলো রাজেশ!

শেয়ার করুন -

JNU তে ছাত্রদের সাথে সাক্ষাৎ করার জন্য দীপিকা পাড়ুকোনের (Deepika Padukone) বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন নতুন বিতর্ক উঠে আসছে। বিশেষ করে ওনার আগামী সিনেমা ছাপাককে (Chhapaak) নিয়ে ট্যুইটারে নতুন করে বিতর্ক ছড়িয়েছে। ট্যুইটারে এখন #boycottchhapaak ট্রেন্ড করছে। কিন্তু এর সাথে সাথে আরেকটি বিতর্ক মাথাচাড়া দিয়েছে। ট্যুইটারে এখন সবাই জিজ্ঞাসা করছে ছাপাক সিনেমায় অ্যাসিড আক্রান্তকারীর নাম নদীম খান থেকে পালটে রাজেশ কেন করা হয়েছে?

ট্যুইটারে এখন প্রশ্ন হল। লক্ষ্মী আগরবালের উপর নদীম খান নামের এক ব্যাক্তি অ্যাসিড ছুঁড়েছিল, কিন্তু লক্ষ্মীর বায়োপিক ছাপাকে নদীম এর জায়গায় নাম পরিবর্তন করে রাজেশ কেন করা হয়েছে? সোশ্যাল মিডিয়ায় দাবি করা হচ্ছে যে। নদীম এর ক্যারেক্টারে সিনেমায় রাজেশ নাম রাখা হয়েছে। আর এই নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেক পোস্ট সামনে আসছে।

ট্যুইটার ব্যবহারকারীরা জানাচ্ছে, সিনেমা যখন সত্য সত্য ঘটনার উপর অবলম্বিত তখন সিনেমায় লক্ষ্মীর উপর অ্যাসিড আক্রমণকারীর নাম বদলে হিন্দু নাম কেন রাখা হয়েছে? ওই সিনেমায় দীপিকার নামও পালটে মালতী রাখা হয়েছে।

মঙ্গলবার জওহর লাল বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনকারী ছাত্রদের সমর্থনে দীপিকা পাড়ুকোনের যাওয়ার পরেই এই বিতর্ক শুরু হয়ে। যদিও তিনি জেএনইউ তে গিয়ে কোন কথাই বলেন নি। কিন্তু এরপর থেকে তিনি লাগাতার ট্রোল হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। আর ওনার অনেক পুরনো পুরনো ভিডিও এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে।