আন্তর্জাতিকনতুন খবর

গোটা বিশ্বকে পরমাণু যুদ্ধে দিকে ঠেলছে চীন, স্যাটেলাইট ছবিতে বেজিংয়ের কুকীর্তি ফাঁস

নয়া দিল্লিঃ চীন সর্বদাই নতুন নতুন কিছু উদ্ভাবনা করে গোটা বিশ্বকে চমকে দেয়। আর এবার তাঁরা এমন এক প্রযুক্তি তৈরি করছে, যা গোটা বিশ্বের জন্য আতঙ্কের। সম্প্রতি চীনকে নিয়ে একটি চাঞ্চল্যকর খবর সামনে আসছে। স্যাটেলাইট ছবির মাধ্যমে জানা গিয়েছে যে, চীন কমপক্ষে তিন জায়গায় মিসাইল সাইলো বানাচ্ছে। আমেরিকার থিংক ট্যাংক ফেডারেশন অফ আমেরিকান সাইন্টিস (FAS) প্ল্যানেট ল্যাবস আর ম্যাক্সার টেকনোলজিস দ্বারা উপলব্ধ করানো ছবির ভিত্তিতে দাবি করেছে যে, উত্তর মধ্য চীনের ইউমেন, হামি আর আন্দ্রাসে দ্রুত গতিতে মিসাইল সাইলোর নির্মাণ করছে চীন। এই সাইলো আকারে অনেক বড়।

CNN খবর অনুযায়ী, ছবিতে চীনের তিনটি সাইলোই (Silos) দেখা যাচ্ছে। কিন্তু FAS-র দাবি কমপক্ষে ৩০০টি মিসাইল সাইলো বানানো হচ্ছে। FAS-র বিশেষজ্ঞদের মতে, যেমন দ্রুত গতিতে কাজ চলছে সেটা দেখে এটাই বলা যায় যে, এটা চীনের সেনার আধুনিকীকরণের কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত। FAS এই মিসাইল সাইলোগুলোতে কাজের পরিসংখ্যান সাপ্তাহিক ভিত্তিতে করেছে। তাঁরা জানিয়েছে যে, এই সাইলোগুলোর মাধ্যমে পরমাণু হাতিয়ারও লঞ্চ করা যাবে।

FAS-র প্রতিবেদনে লেখক ম্যাট কোর্ডা আর এম ক্রিস্টেন্স মঙ্গলবার জানিয়েছেন। এটা চীনের অভূতপূর্ব পরমাণু নির্মাণ। উনি জানিয়েছেন, এরফলে চীন দ্বারা নুন্যতম স্তরে পরমাণু হাতিয়ার ব্যবহার আর তাঁদের নীতি নিয়ে প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক। রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, মিসাইল সাইলো সাইটগুলো এখনও কার্যকর হতে অনেক বছর সময় লেগে যাবে। আর এটাও দেখতে হবে যে, চীন এই সাইলোগুলোর ব্যবহার কীভাবে করে। শোনা যাচ্ছে যে, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এটা সবথেকে বড় মিসাইল সাইলো।

ম্যাট কোর্ডা আর এম ক্রিস্টেন্স দুজনেরই আশঙ্কা হল, চীন যেভাবে সাইলো বানানোর কাজে জুটেছে, তাতে পরমাণু যুদ্ধের দিকে এগিয়ে যাবে গোটা বিশ্ব। এই বছরের জুন মাসে তাঁদের প্রথম সাইলো ফিল্ডের কথা প্রকাশ্যে এসেছিল। আর জুলাই মাসের একটি রিপোর্টে দ্বিতীয় একটি সাইলোর কথা বলা হয়েছিল। চীন আর আমেরিকার মধ্যে যখন উত্তেজনার পারদ তুঙ্গে, তখনই এই খবর প্রকাশ্যে এসে আরও সমস্যা বাড়িয়ে তুলেছে।

Related Articles

Back to top button