নতুন খবরভারতবর্ষ

অ্যাপ নিষিদ্ধ করার পর কান্নাকাটি শুরু করল চীন, দিলো আন্তর্জাতিক আইনের দোহাই

নয়া দিল্লীঃ ভারতে (India) টিকটক (TikTok) সমেত ৫৯ টি চীনের অ্যাপ (China App) নিষিদ্ধ করার পর চীনের (China) তরফ থেকে প্রথম প্রতিক্রিয়া সামনে এলো। নিষেধাজ্ঞার কারণে কাঙ্ক্ষিত, চীন এখন আন্তর্জাতিক আইনের কথা মনে করাচ্ছে। চীনের বিদেশ মন্ত্রালয়ের মুখপাত্র (Chinese Foreign Ministry spokesperson) ঝায়ো লিজিয়ান (Zhao Lijian) বলেন, আমরা এই বিষয়ে চিন্তিত আর পরিস্থিতি খতিয়ে দেখছি।

মুখপাত্র বলেন, আমরা সবসময় এই বিষয়ে জোর দিই যে, চীনের সরকার সর্বদা চীনের ব্যবসাকে আন্তর্জাতিক এবং স্থানীয় আইন মেনেই চালাক। উনি বলেন, ভারত সরকারের উপর চীনের বিনিয়োগ সমেত আন্তর্জাতিক বিনিয়োগের আইন আর অধিকার গুলোকে বজায় রাখার দায়িত্ব আছে।

আপনাদের জানিয়ে দিই, সোমবার ভারত সরকার চীনকে বড়সড় ঝটকা দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাপ টিকটক সমেত চীনের ৫৯ টি অ্যাপের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ভারত আর চীনের মধ্যে চলা সীমান্ত বিতর্কের পর টিকটক অ্যাপ ব্যান করার দাবি উঠেছিল। এছাড়াও ইউসি ব্রাউসার, শেয়ার চ্যাট এর মতো অনেক অ্যাপে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার। এর আগে ভারতীয় সুরক্ষা এজেন্সি গুলো চীনের অ্যাপ গুলোর একটি তালিকা তৈরি করে কেন্দ্র সরকারের কাছে সেগুলোকে ব্যান করার জন্য আবেদন জানিয়েছিল। এজেন্সি গুলো দাবি জানিয়েছিল যে, এই চীনের অ্যাপ গুলো ভারতীয়দের গোপনীয়তা চুরি করছে।

সরকারের তরফ থেকে জারি নির্দেশ অনুযায়ী, সরকার সেই সমস্ত মোবাইল অ্যাপ গুলোর উপরে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে, যেগুলো ভারতের সার্বভৌম ক্ষমতা, ভারতের সুরক্ষা, রাজ্যের সুরক্ষা আর সার্বজনীন ব্যবস্থার জন্য বিপদজনক। তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রককে বিভিন্ন দিক থেকে এই অ্যাপ গুলোকে নিয়ে অনেক অভিযোগ পাঠানো হয়েছিল। সেখানে অনেক কয়েকটি মোবাইল অ্যাপের অপব্যবহার নিয়েও বলা হয়েছিল। ওই অ্যাপ গুলো আইফোন আর অ্যান্ড্রয়েড দুই প্ল্যাটফর্মেই ব্যবহারকারীদের তথ্য চুরি করছিল।

Back to top button
Close