নতুন খবরভারতবর্ষ

প্রধানমন্ত্রী মোদীর এক হুমকিতেই গলা শুকিয়ে গেল চীনের! বলল, আমরা আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা সমাধান করতে প্রস্তুত

নয়া দিল্লীঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (Narendra Modi) স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লার প্রাচীর থেকে দেশের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় বলেছিলেন যে, এলওসি থেকে এলএসি পর্যন্ত ভারতের সার্বভৌম ক্ষমতাকে চ্যালেঞ্জ জানানোদের যোগ্য জবাব দিয়েছে সেনা। প্রধানমন্ত্রী সেদিন নাম না নিয়েই চীন (China) আর পাকিস্তানকে (Pakistan) আক্রমণ করেছিলেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এই বয়ানের পর চীন নিজেদের সুর নরম করেছে। এবার তাঁরা সমস্যা সমাধানের কথা বলছে। চীন সোমবার জানিয়েছে যে, তাঁরা পারস্পরিক রাজনৈতিক বিশ্বাস বাড়াতে, এবং নিজেদের পার্থক্যকে সুস্পষ্টভাবে সমাধান করতে এবং দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের সুরক্ষার জন্য ভারতের সাথে কাজ করতে প্রস্তুত। চীনের বিদেশ মন্ত্রালয়ের মুখপাত্র ঝায়ো লিজিয়ান প্রেস কনফারেন্সে এই কথা বলেছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ভারতের ৭৪ তম স্বাধীনতা দিবসে লালকেল্লার প্রাচীর থেকে দেশের উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় বলেছিলেন, ‘LAC থেকে LOC পর্যন্ত ভারতের সার্বভৌম ক্ষমতাকে চ্যালেঞ্জ জানানোদের যোগ্য জবাব দিয়েছে সেনা।” উনি এও বলেছিলেন যে, লাদাখে কি হয়েছে সেটা গোটা বিশ্ব দেখেছে। ভারতীয় সেনা প্রতিটি ক্ষেত্রেই শত্রুপক্ষকে যোগ্য জবাব দিচ্ছে। উনি বলেছিলেন, আমাদের জওয়ান কি করতে পারে সেটি গোটা বিশ্ব লাদাখে ঘটে যাওয়া ঘটনার পর দেখেছে। প্রধানমন্ত্রী মোদী সেদিন বলেন, যারা চ্যালেঞ্জ জানাবে, তাঁদেরকে তাঁদের ভাষাতেই জবাব দেওয়া হবে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সেদিন বলেছিলেন, ভারতের স্বয়ংপ্রভুতার সম্মান আমাদের কাছে সর্বোচ্চ। LoC থেকে শুরু করে LAC পর্যন্ত যখনই দেশের স্বয়ংপ্রভুতাকে কেউ চোখ রাঙানোর চেষ্টা করেছে, তাঁদের দেশের বাহাদুর জওয়ানরা সেই ভাষাতেই জবাব দিয়েছে। লাদাখে যা হয়েছে সেটা গোটা বিশ্ব দেখেছে। প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন, আজ মাতৃভূমিতে সর্বস্ব দেওয়া সেই জওয়ানদের প্রণাম জানাই, যারা লাগাতার সীমান্তে সন্ত্রাসবাদ আর বিস্তারবাদের বিরুদ্ধে বুক চিতিয়ে লড়াই করে চলেছে। আজ গোটা বিশ্বের বিশ্বাস ভারতের উপর আরও মজবুত হয়েছে।

Back to top button
Close