নতুন খবরভারতবর্ষ

মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে কেন্দ্রকে নিশানা রাহুল গান্ধীর, চীনের ফাঁদে পা দিয়ে ভারতের দুর্নাম

নয়া দিল্লিঃ গালওয়ান উপত্যকা, যেখানে ৫ জুন, ২০২০-এ ভারতীয় ও চীনা সৈন্যদের মধ্যে হিংসাত্মক সংঘর্ষ হয়েছিল। এরপর থেকে দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনা চরমে পৌঁছে যায়। আর এখন প্রোপাগান্ডা যুদ্ধের মাধ্যমে ভারতকে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করেছে চীন।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে। সেই ভিডিওতে চীনা সেনাদের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা পতাকা উত্তোলন করতে দেখা যাচ্ছে। দাবি করা হচ্ছে এই ভিডিওটি নতুন বছরের প্রথম দিনের এবং যেখানে পতাকা উত্তোলন করা হচ্ছে সেটি হল গালওয়ান উপত্যকা, যেখানে দুই দেশের সেনাদের মধ্যে হিংসাত্মক সংঘর্ষ হয়েছিল।

বিভিন্ন মিডিয়ে রিপোর্টে সেনা সূত্র উদ্ধৃত করে দাবি করা করেছে যে, নতুন বছর উপলক্ষে গালওয়ানের বিতর্কিত এলাকায় চীন নিজেদের পতাকা উত্তোলন করেনি। রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, চীন তাঁদের গালওয়ান উপত্যকার অ-বিতর্কিত অংশে পতাকাটি উত্তোলন করেছিল, গালওয়ানের নদীর বাঁকের কাছে নয় যেখানে ভারত-চীন সেনাদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছিল।

ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতেই ফের কেন্দ্র-কে আক্রমণ করেছে বিরোধীরা। রাহুল গান্ধী ট্যুইট করে লিখেছেন, ‘গালওয়ান উপত্যকায় আমাদের তেরঙ্গাও ভাল দেখায়। জবাব দিতে হবে চীনকে। মোদীজি, নীরবতা ভাঙুন।” এছাড়াও রাহুল গান্ধীর ঘনিষ্ঠ শ্রীনিবাস বি ট্যুইটারে লিখেছেন, ‘নববর্ষ উপলক্ষে ভারতের গালওয়ান উপত্যকায় চীনা পতাকা উত্তোলন করা হয়েছে। ৫৬ ইঞ্চি প্রহরী কোথায়?’

২০২০-র জুনে হওয়া সংঘর্ষের পর উভয় দেশের সেনাবাহিনী দুই কিলোমিটার পিছু হটতে সম্মত হয়েছিল। এর পরে NSA অজিত ডোভাল এবং চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের মধ্যেও আলোচনা হয়। এর পরে, উভয় দেশের সেনাবাহিনী বিতর্কিত এলাকা থেকে দুই কিলোমিটার পিছু হটতেও নিশ্চিত হয়েছে।

Related Articles

Back to top button