Press "Enter" to skip to content

তাইওয়ানের রাষ্ট্রপতিকে সরাসরি প্রাণে মারার হুমকি চীনের কমিউনিস্ট পার্টির মুখপাত্র গ্লোবাল টাইমস এর

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ আমেরিকার (United State) রাজদূত কীথ ক্রেচ দুমাসে দুবাই তাইওয়ান (Taiwan) সফরে গেছেন। আর এই নিয়ে চরম চটে আছে লাল চীন (China)। তাঁরা এতটাই চটে আছে যে, এবার তাইওয়ানের রাষ্ট্রপতি সাই ইং ওয়েনকে (Tsai Ing-wen) প্রাণে মারার পর্যন্ত হুমকি দিয়ে দিয়েছে। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির মুখপত্র গ্লোবাল টাইমস বলেছে যে, সাই ইং ওয়েন আমেরিকার বিদেশ মন্ত্রালয়ের আধিকারিকের সাথে ডিনার করে আগুনের সাথে খেলছে। যদি সাই ইং ওয়েন-এর কোনও পদক্ষেপ চীনের আইনের লঙ্ঘন করে, তাহলে যুদ্ধ শুরু হয়ে যাবে আর তাইওয়ানের সব নেতাদের সাফ করে দেওয়া হবে।

শুধু তাই নয়, গ্লোবাল টাইমস তাইওয়ানের চলা সামরিক অভ্যাসকে ক্রেচের যাত্রার প্রতিক্রিয়া বলেছে। কমিউনিস্ট পার্টির মুখপত্র লেখে, তাইওয়ানের উচিৎ এই যুদ্ধঅভ্যাসকে ভয় পাওয়া। কারণ এই যুদ্ধঅভ্যাস তাইওয়ানে কবজা করার একটি ট্রায়াল। আমেরিকা আধিকারিক ভাবে ক্রেচের তাইওয়ান যাত্রার ঘোষণা করেছিল না, আর সেই কারণে তিনি যখন ওই দেশে পৌঁছান তখন চীন সামরিক অভ্যাস শুরু করে।

এই সামরিক অভ্যাস একদম শেষ মুহূর্তে নির্ধারিত হয় আর চীন এই যুদ্ধ অভ্যাসের মাধ্যমে এটা দেখাতে চায় যে, তাঁরা যেকোন সময় বড়সড় কোনও পদক্ষেপ নিতে প্রস্তুত। জানিয়ে দিই, চীন শনিবার লাগাতার তৃতীয় দিন তাইওয়ানের বায়ুসীমায় নিজেদের লড়াকু বিমান পাঠায়।