Press "Enter" to skip to content

নাগরিক সংশোধন আইন লাগু করে ভারতকে ইসরাইল বানাতে চাইছে বিজেপিঃ ওয়াইসি

শেয়ার করুন -

বুধবার কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেটে নাগরিকতা সংশোধন বিল (CAB) কে স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। এই বিলে পাকিস্তান, বাংলাদেশ আর আফগানিস্তান থেকে অত্যাচারিত হয়ে আসা হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পারসি এক কথায় অ-মুসলিমদের ভারতীয় নাগরিকতা দেওয়ার আইনের উল্লেখ আছে। এই বিলে মুসলিম সম্প্রদায়কে নাগরিকতা দেওয়ার কথা বলা হয়নি। আগামী সপ্তাহে শীতকালীন অধিবেশনে সংসদে পেশ করা হবে বলে জানা যাচ্ছে।

আরেকদিকে, বিরোধী দল গুল এই বিলের বিরধিতায় সরব হয়েছে। AIMIM এর প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (Asaduddin Owaisi) এই বিল নিয়ে সরকারকে আক্রমণ করে সরকারের মনোভাব নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, নাগরিকতা সংশোধন বিল লাগুর পিছনে সরকার ভারতকে একটি ধর্ম আধারিত দেশ বানাতে চাইছে। এই বিল লাগু হওয়ার পর হিন্দুস্তান আর ইসরাইলের মধ্যে কোন পার্থক্য থাকবেনা। সংবিধানে ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকতা দেওয়ার কথা উল্লেখ নেই বলে জানান তিনি।

উনি প্রশ্ন করে বলেন, যদি কেউ নাস্তিক হয় তখন কি করা হবে? এই আইন লাগু হলে গোটা বিশ্বে আমাদের নিয়ে হাসি ঠাট্টা করা হবে। ভারতীয় জনতা পার্টি ভারতের মুসলিমদের বোঝাতে চাইছে যে, তাঁরা দ্বিতীয় শ্রেণীর নাগরিক।

ওয়াইসি বলেন, যদি মিডিয়া রিপোর্ট ঠিক হয় তাহলে, পুর্বত্তর রাজ্য গুলোকে প্রস্তাবিত CAB আইন থেকে রেহাই দেওয়া হবে। আর এটা মৌলিক অধিকার সম্বন্ধিত ১৪ ধারার লঙ্ঘন, কারণ আপনার কাছে দেশে নাগরিকতার জন্য দুটি আইন হতে পারেনা। উনি এও বলেন যে, ধর্মের ভিত্তিতে নাগরিকতা দেওয়ার আমাদের সংবিধান বিরোধী।

ওয়াইসি বলেন, CAB লাগু করা আমদের স্বাধীনতা সংগ্রামী দের অপমান করা হবে, কারণ আপনারা দ্বীরাষ্ট্র সিদ্ধান্তকে পুনর্জীবিত করতে চাইছেন। একজন ভারতীয় মুসলিম হিসেবে আমি জিন্নার দ্বীরাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্তকে খারিজ করেছি। এখন আপনারা এই আইন লাগু করতে চাইছেন এটা দুর্ভাগ্যজনক।